নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে জিতবোই: আইভী

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২ | ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে জিতবোই: আইভী

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি
🕐 ১১:২৫ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৬, ২০২২

নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে জিতবোই: আইভী

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়রপ্রার্থী সেলিনা হায়াত আইভী। তিনি বলেছেন, নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে আমি জিতবোই।

রোববার (১৬ জানুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে নগরীর শিশুবাগ বিদ্যালয়ের নারী কেন্দ্রে ভোট দেওয়া শেষে তিনি এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ভোটের গতি ‘স্লো’ অভিযোগ করে আইভী বলেন, নগরীর ৩, ৫, ১৮, ১৭, ২০ নম্বর ওয়ার্ডে খুবই স্লো ভোট কাস্টিং হচ্ছে। দীর্ঘ সময় ধরে মানুষ দাঁড়িয়ে আছে। আমি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতা চাচ্ছি, যাতে উৎসবমুখর পরিবেশে আমার লোকগুলো ভোট দিতে পারে।

এ ধীরগতির কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, ইভিএম নতুন, বিষয়টি ভোটারদের কাছেও নতুন। তাদের ট্রেইনআপ করে গতি বাড়াতে হবে। দিন ছোট। শীতকাল। সবকেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি আছে।

ভোটের পরিবেশ এখন পর্যন্ত ঠিক আছে মন্তব্য করে আইভী বলেন, আমি জানি না একটু পরে কী হবে। আমি চাই ভোটাররা যাতে দ্রুত ভোট দিতে পারে।

‘নারায়ণগঞ্জের মানুষ নির্ধারণ করে ফেলেছেন আমাকেই ভোট দেবে। ইনশাআল্লাহ নৌকার জয় হবেই হবে, আইভীর জয় হবেই হবে।’

এর আগে সকালে বাসা থেকে বের হয়ে সরাসরি বাবা আলী আহাম্মদ চুনকার কবর জিয়ারত করেন সেলিনা হায়াৎ আইভী। সেখান থেকে বেলা ১১টার দিকে নগরীর শিশুবাগ বিদ্যালয়ে নিজের ভোট দিতে আসেন তিনি। ভোট দিয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, সুষ্ঠু ভোট হলে বিজয় নিশ্চিত। নৌকা জিতবেই শতভাগ নিশ্চিত।

এদিকে সকাল সাড়ে ৮টার দিকে নারায়ণগঞ্জ ইসলামিয়া কামিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে ভোট দেন হাতি প্রতীকের প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার। তিনি ভোট দিয়ে বলেন, আল্লাহপাকের মেহেরবানিতে সব মিডিয়ার রিপোর্ট, জনগণের যে ভোট, আল্লাহর রহমতে লক্ষাধিক ভোটের ব্যবধান হবে ইনশাআল্লাহ।

নাসিকের ২৭টি ওয়ার্ডের ১৯২টি কেন্দ্রে সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। যা একটানা চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। সবগুলো কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোটগ্রহণ চলছে।

শীত আর কুয়াশা উপেক্ষা করেই সকালে ভোটাররা দলে দলে কেন্দ্রগুলোতে ভিড় করছেন। ভোটকে কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা দেখা গেছে।

ভোটাররা বলছেন, স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে তারা তাদের সিটি মেয়রকে বেছে নেবেন। তারা আশা করছেন, ভোটগ্রহণের শুরু থেকে গণনা পর্যন্ত একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ বিরাজমান থাকবে।

গত ৩০ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনে মেয়র পদে সাত প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকা প্রতীক নিয়ে সেলিনা হায়াত আইভী। এর আগে দুবার নাসিকের মেয়র নির্বাচিত হন তিনি। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে হাতি প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন বিএনপির বহিষ্কৃত নেতা তৈমূর আলম খন্দকার, খেলাফত মজলিসের এ বি এম সিরাজুল মামুন দেয়ালঘড়ি, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মাওলানা মো. মাছুম বিল্লাহ হাতপাখা, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের মো. জসীম উদ্দিন বটগাছ, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মো. রাশেদ ফেরদৌস হাতঘড়ি এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী কামরুল ইসলাম ঘোড়া প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন।

এছাড়া সাধারণ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ১৪৮ জন এবং সংরক্ষিত নয়টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৩২ জন।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ২৭টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা পাঁচ লাখ ১৭ হাজার ৩৬১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার দুই লাখ ৫৯ হাজার ৮৪৬ জন এবং নারী ভোটার দুই লাখ ৫৭ হাজার ১১১ জন। ট্রান্সজেন্ডার ভোটার রয়েছেন চারজন।

 
Electronic Paper