যানজট নিরসনে স্থায়ী সমাধান চান কটিয়াদী পৌরবাসী

ঢাকা, বুধবার, ১ ডিসেম্বর ২০২১ | ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

যানজট নিরসনে স্থায়ী সমাধান চান কটিয়াদী পৌরবাসী

আতিকুর রহমান কাযিন, কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জ)
🕐 ৩:৫৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৫, ২০২১

যানজট নিরসনে স্থায়ী সমাধান চান কটিয়াদী পৌরবাসী

সকাল সাড়ে আটটা থেকে লেগে থাকে যানজট। এমন ঘটনা নৈমিত্তিক। কয়েক বছর ধরে এ ধরনের যানজট লেগেই আছে। যানজট নিরসনে কোনো উদ্যোগ না নেওয়ায় দুর্ভোগ পোহাচ্ছে সাধারণ মানুষ। যদিও কোনো কোনো ঘটনায় কয়েক ঘণ্টার জন্য যানজট নিরসনে পুলিশ কাজ করলেও তা স্থায়ী নয়।

জানা যায়, কটিয়াদী পুরাতন পৌরসভা মোড়, উপজেলা মোড়, হাসপাতাল রোড ও থানার মোড় পর্যন্ত এই কয়েকটি মোড়ে প্রতিনিয়ত যানজট লেগেই থাকে। যানজটের প্রধান কারণ হচ্ছে রাস্তার দু'পাশে অবাধে মোটরসাইকেল পার্কিং ও অটোরিকশা রাখা। অনেকেই রাস্তা দখল করে যাত্রী উঠা-নামা করায় সৃষ্টি হয় দীর্ঘ যানজট।

এদিকে, হাসপাতালের সামনে বেশ কয়েকটি ক্লিনিক ও ব্যাংক প্রতিষ্ঠান রয়েছে। অনেকেই ব্যাংকের টাকা উত্তোলন করতে গিয়ে তাদের যানবাহনটি রাখছেন রাস্তার পাশে। আবার কেউ কেউ ব্যাংকের সামনেই রাখছেন। যার ফলে চলাচল করতে গিয়ে সৃষ্টি হচ্ছে যানজটের লম্বা লাইন। যানজটের কারণে অনেকেই তাদের সঠিক গন্তব্যে পৌঁছাতে পারছেন না। মাঝে মধ্যে যানজট নিরসনে পুলিশ কাজ করলেও তা যেন ঘন্টা খানেকের জন্য। তাই যানজটের স্থায়ী সমাধান চায় কটিয়াদী পৌরবাসী।

সূত্র জানায়, এই উপজেলায় গত এক বছরে অটোরিকশার সংখ্যা বেড়েছে। বিগত সময়ে যে পরিমাণ ত্রিচক্রযান ছিল তার চেয়ে অনেক গুনে বেড়ে গেছে। যার ফলে কটিয়াদী পৌর সদরে অধিকাংশ জায়গায় যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। আর এসব অটোরিকশা গুলোকে একটি শৃঙ্খলা আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন কেউ কেউ।

স্থানীয়রা জানায়, হঠাৎ করে অটোরিক্সা বেড়ে যাওয়ায় যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। বিশেষ করে বাজারের সময়ে বড় বড় ডিস্ট্রিক্ট ট্রাক প্রবেশ করায় যানজট লেগে থাকে। অন্যদিকে, রাস্তার পাশে অবাধে যাত্রী উঠা-নামা, মোটরসাইকেল পার্কিংয়ের কারণে জ্যাম সৃষ্টি হয়। এসব নিরসনে পৌরসভাও কার্যকর কোন প্রদক্ষেপ নিচ্ছে না। অনেক সময় হাসপাতালের জরুরি রোগী নিয়ে আসতেও বিপাকে পড়তে হচ্ছে।

অটোচালক বাদল মিয়া ও মো. কাসেম হোসেন জানান, 'বড় বড় ডিস্ট্রিক্ট ট্রাক বাজারে ভেতরে আসলেই যানজট সৃষ্টি হয়। আমরাও সময় বাঁচাতে জন্য গাড়ি ঘুরাতে গিয়ে যানজট সৃষ্টি করে ফেলি।'

কটিয়াদী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম শাহাদাত হোসেন জানান, 'কর্তৃপক্ষের অনুমতি পেলে যানজট নিরসনে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।'

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জ্যোতিশ্বর পাল জানান, 'আইনশৃঙ্খলা মিটিংয়ে যানজটের বিষয়ে আলোচনা করে উদ্যোগ নেওয়া হবে।'

 

 
Electronic Paper