সাত বছর পরিত্যক্ত শেখ কামাল স্টেডিয়াম

ঢাকা, সোমবার, ৮ মার্চ ২০২১ | ২৪ ফাল্গুন ১৪২৭

সাত বছর পরিত্যক্ত শেখ কামাল স্টেডিয়াম

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি ৬:২৮ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২১

print
সাত বছর পরিত্যক্ত শেখ কামাল স্টেডিয়াম

গোপালগঞ্জ শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম সাত বছর ধরে পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। কোনো ধরনের খেলা হচ্ছে না। এরই মধ্যে বিভিন্ন ধরনের ইলেকট্রনিক্স ইনোস্টমেন্ড জিনিসপত্র নষ্ট হয়ে গেছে। হতাশ হয়ে পড়ছে ক্রিকেট খেলোয়াড়রা।

জানা যায়, গোপালগঞ্জে ২০১৩ সালের ১২ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১০৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ১০ একর জমির ওপর আন্তর্জাতিক মানের শেখ কামাল ক্রিকেট স্টেডিয়াম উদ্বোধন করেন। যেখানে সুইমিংপুল, জিমনেশিয়ামসহ উন্নতমানের সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা রয়েছে। ১২ হাজার দর্শকের ধারণক্ষমতা রয়েছে এই স্টেডিয়ামে। অবকাঠামো সমস্যা ও উন্নত মানের আবাসিক হোটেল না থাকার অজুহাতে সাত বছর ধরে কোনো ক্রিকেট খেলা হচ্ছে না।

এ কারণেই পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। ফলে নষ্ট হয়ে গেছে স্টেডিয়ামের ভিআইপি লাউঞ্জের এসি, লিফট, গ্যালারির চেয়ার, লাইট। দেখার যেন কেউ নেই। এ কারণে স্থানীয় ক্রিকেট খেলোয়াড়রা হতাশ হয়ে পড়ছেন। নতুন কোনো খেলোয়াড় এখান থেকে সৃষ্টি হচ্ছে না। এদিকে স্টেডিয়ামের চারিদিকে নোংরা পরিবেশ, মটর গ্যারেজ ও মাদকাসক্তদের আড্ডা পরিণত হয়েছে।

দ্রুত ত্রুটি বিচ্যুতি শেষ করে স্টেডিয়ামটিতে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের খেলা হওয়ার দাবি করেছেন গোপালগঞ্জের সর্বস্তরের জনগণ ও ক্রিকেটপ্রেমীরা।

জেলা প্রশাসক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি শাহিদা সুলতানা বলেছেন, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের খেলা এই শেখ কামাল স্টেডিয়ামে সম্ভব। দীর্ঘদিন ধরে স্টেডিয়ামটি পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে থাকলে সবকিছু নষ্ট হয়ে যাবে। দ্রুত এখানে খেলাধুলা হয় সে বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে জানানো হবে বলে জানান তিনি।