নালিতাবাড়ী পৌর নির্বাচন: আশ্বাস নিয়ে হাজির প্রার্থীরা

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ মার্চ ২০২১ | ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭

নালিতাবাড়ী পৌর নির্বাচন: আশ্বাস নিয়ে হাজির প্রার্থীরা

শাকিল মুরাদ, শেরপুর ৮:৫৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৭, ২০২১

print
নালিতাবাড়ী পৌর নির্বাচন: আশ্বাস নিয়ে হাজির প্রার্থীরা

শেরপুরের নালিতাবাড়ী পৌরসভার প্রতিষ্ঠার দুই যুগে ক্ষমতার পালাবদল হয়েছে কয়েকবার। নির্মিত হয়েছে নতুন পৌর ভবন। কিন্তু শতভাগ নিশ্চিত হয়নি নাগরিক সুযোগ-সুবিধা। অথচ ভোটের সময় এলেই আশ্বাসের বানী নিয়ে হাজির হয় মেয়র প্রার্থীরা।

পৌরবাসীর অভিযোগ, রাস্তাঘাটের উন্নয়ন হলেও বেহাল ড্রেনেজ ব্যবস্থা। এতে নাকাল বাসিন্দারা। বেশিরভাগ ওয়ার্ডে নিশ্চিত হয়নি সুপেয় পানি সরবরাহ। রাস্তাঘাটে ময়লার ভাগাড়। বৃষ্টি এলেই জলাবদ্ধতা। এতে ভোগান্তিতে পড়েন সাধারণ মানুষ। 

এছাড়া শহরজুড়ে যত্রতত্র যানবাহন। নেই কোন নির্দিষ্ট ষ্ট্যান্ড। অথচ নিয়মিত টোল দিতে হচ্ছে যানবাহন মালিকদের। শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোর চেহারা ভালো হলেও, দৃশ্যমান কোন উন্নয়ন হয়নি বর্জ্য ব্যবস্থাপনায়। যার কারণে বাসা বাড়ির সামনেই ময়লার স্তুপ করে রাখতে হয় পৌরবাসীর। সময় মতো তা অপসারণ না করায়, দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়, বাড়ে মশার উপদ্রব।

নাগরিক সমস্যার কথা স্বীকার করলেও, মেয়রের দাবি উন্নয়নে চেষ্টার কমতি ছিল না। নির্বাচন ঘিরে ফের ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন বর্তমান মেয়র আবু বক্কর সিদ্দিক।

তিনি বলেন, ‘গত মেয়াদে কিছু কাজ অসম্পূর্ণ ছিল, যা সম্পন্ন করার জন্য আমরা ইতোমধ্যে একটি কমিটি করেছি। এবার জয়ী হলে সকল অসম্পন্ন কাজ সম্পন্ন করবো।’

অন্যদিকে সরকারদলীয় প্রার্থীর সমর্থকদের হুমকির ভয়ে মাইক প্রচারণাও ঠিকভাবে করতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন বিএনপি প্রার্থী আনোয়ার হোসেন। তার অভিযোগ, আওয়ামীলীগের সমর্থকরা শহরের আড়াই আনি বাজারে আমার হুমকি দিয়ে ব্যানার খুলে ফেলার চেষ্টা করেছিল।

এদিকে নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সব ধরণের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শানিয়াজ্জামান তালুকদার। তিনি বলেন, আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মাঠে রয়েছে। এখনো কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি এবং কোন প্রার্থী অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

পৌরসভায় মোট ভোটার ২২ হাজার ১৩৩ জন, এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১০ হাজার ৬৩১ জন ও নারী ভোটার ১১ হাজার ৫০২ জন। আগামী শনিবার পৌর নির্বাচনে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।