একদিনে সড়কে ঝরল ২১ প্রাণ

ঢাকা, শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১ | ২ মাঘ ১৪২৭

একদিনে সড়কে ঝরল ২১ প্রাণ

নিজস্ব প্রতিবেদক ৬:৩৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৪, ২০২০

print
একদিনে সড়কে ঝরল ২১ প্রাণ

সড়কে দিনের পর দিন দীর্ঘ হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল। প্রতিদিনই ঝরছে প্রাণ। প্রতিটি মৃত্যুই কারও সারা জীবনের কান্নায় পরিণত হচ্ছে। কোনো কিছুতেই থামছে না দুর্ঘটনা নামের এই প্রকাশ্য হত্যাকাণ্ড। আর এ তালিকায় আজ একদিনেই নাম লেখিয়েছে ২১ জন। শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) বিভিন্ন সময় দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

মানিকগঞ্জে বাস-অটোরিকশা সংঘর্ষে একই পরিবারের ছয়জনসহ সাতজন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে এক শিশু ও দুই নারী রয়েছেন। ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলায় যাত্রীবাহী বাসে ট্রাকের ধাক্কায় ছয়জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া মাগুরায় তিনজন, নাটোর, ভোলা, ফরিদপুর এবং ঢাকার মতিঝিল ও যাত্রাবাড়ীতে সড়ক দুর্ঘটনায় একজন করে মারা গেছেন।

জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে নিচে বিস্তারিত জানানো হলো-

মানিকগঞ্জ: মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে বাস ও অটোরিকশার সংঘর্ষে একই পরিবারের ছয়জনসহ মোট সাতজন নিহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। ৪ ডিসেম্বর, শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে এই ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটে। অটোরিকশার নিহত ছয় যাত্রী একই পরিবারের সদস্য বলে জানা গেছে। তাদের বাড়ি টাঙ্গাইলের নাগরপুরের চাষাবাদড়া বাদ্যকর এলাকায়। নিহত অন্যজন অটোরিকশার চালক।

নিহতরা হলেন হরেকৃষ্ণ বাদ্যকার (৬০), খুশি বাদ্যকার (৫০), গোবিন্দ বাদ্যকার (৩০), ববিতা বাদ্যকার (২৬), রাধে বাদ্যকার (৫), রামপ্রসাদ বাদ্যকার (৩০) এবং অটোরিকশার চালক জামাল শেখ (৩২)।

দৌলতপুর থানার ওসি রেজাউল করিম দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, শুক্রবার দুপুরে সিএনজিচালিত একটি অটোরিকশায় তারা দৌলতপুর থকে মানিকগঞ্জ যাচ্ছিলেন। বেলা পৌনে ৩টার দিকে মানিকগঞ্জ-দৌলতপুর সড়কের মুলকান্দি এলাকায় একটি যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে অটোরিকশাটির মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই ওই সাতজন নিহত হন।

ওসি রেজাউল আরও জানান, লাশ দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

টাঙ্গাইল: ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলায় যাত্রীবাহী বাসে ট্রাকের ধাক্কায় ৬ জন নিহত হয়েছেন। ৪ ডিসেম্বর, শুক্রবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার কুরনি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সায়েদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও বেশ কয়েকজন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

এদিকে গোড়াই হাইওয়ে থানার ওসি মোজাফ্ফর হোসেন ও পুলিশ সার্জেন্ট মো. রোবায়েত হোসেন জানান, ঘটনাস্থলে ৪ জন ও হাসপাতালে আরও দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। কুমুদিনী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন আরও ৫ জন।

পুলিশ জানিয়েছে, রংপুর থেকে ছেড়ে আসা সেবা ক্লাসিক পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস মির্জাপুর উপজেলার কুরনি এলাকায় বিকল হয়ে পড়ে। পরে মেরামতের জন্য রাস্তার পাশে দাঁড় করানো হয় বাসটি। সকাল ৭টার দিকে ঢাকাগামী সবজিভর্তি এক ট্রাক বাসটিকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হন। পরে হাসপাতালে নেয়া হলে আরও দুজনের মৃত্যু হয়।

ঢাকা: রাজধানীর মতিঝিলে জনতা ব্যাংকের সামনে বাস ও সিএনজি চালিত অটোরিকশার সংঘর্ষে নুর সাহিবা আক্তার (১০) নামের এক শিশু নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় সিএনজি চালকসহ আরও চারজন আহত হয়েছেন। সকাল পৌনে ৯টার দিকে দুর্ঘটনাটি ঘটে।

অপরদিকে যাত্রাবাড়ীর মানিকদি এলাকায় ট্রাকের ধাক্কায় ইফতিখার খলিল ইফতি (১৮) নামের এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। সকাল ১০টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় আহত হয়েছেন অনন্ত বড়ুয়া (১৮) নামের আরেক শিক্ষার্থী।

ইফতির গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার বাউচাইল গ্রামে। বর্তমানে কদমতলী খালপার হক সোসাইটি সবুজবাগ এলাকায় পরিবারের সঙ্গে থাকতেন। তিনি পুলিশ লাইন স্কুল অ্যান্ড কলেজের এইচএসসির দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

মাগুরা : মাগুরার ঠাকুরবাড়ী এলাকায় সবজির ট্রাকের ধাক্কায় দুই গৃহবধু ও রাজাপুরে ইজিবাইকের ধাক্কায় এক মোটরসাইকেল আরোহী (পল্লী চিকিৎসক) নিহত হয়েছেন।

সায়ার সার্ভিস ও পুলিশ জানায়, বিকেলে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের মাগুরা সদরের রামনগর ঠাকুরবাড়ী এলাকায় একটি সবজি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা দুই গৃহবধূকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই স্বর্ণলতা নামের এক নারী নিহত হন। অপর গৃহবধূ সাথী মজুমদারকে গুরুতর আহত অবস্থায় মাগুরা সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ঢাকায় রেফার্ড করেন। ঢাকায় নেয়ার পথে তিনি মারা যান।

অন্যদিকে মহম্মদপুর উপজেলার নড়াইল-রাজাপুর সড়কের রাজপুর বাজার এলাকায় ইজিবাইকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী আহাদ আলী নামের এক পল্লী চিকিৎসক আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে মাগুরা সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঘোষণা করেন।

নাটোর: নাটোর সদর উপজেলায় ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে আলাল ফকির (৬৫) নামের এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। ভোর সাড়ে ৬টার দিকে সদর উপজেলার হয়বতপুর বাজার এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সকালে আলাল ফকির বাড়ির পাশে হয়বতপুর বাসস্ট্যান্ড মসজিদে নামাজ শেষ করে চা খাওয়ার জন্য হাইওয়ে পার হচ্ছিলেন। এ সময় বিপরীত দিকে থেকে আসা এক ট্রাকের চাকার নিচে পড়ে তার দুই পা পিষ্ট হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে নাটোর সদর হাসপাতালে নিলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ভোলা: ভোলার বাংলাবাজারে একটি মালবাহী ট্রলির চাপায় নিজাম উদ্দিন মিরন (৪০) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় মোটরসাইকেলে থাকায় আরো দুইজন আহত হয়ে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। শুক্রবার দুপুরে বাংলাবাজার পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে সামনে ভোলা-চরফ্যাশন সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, মিরন তার মোটরসাইকেলে আরও দুইজনসহ বোরহানউদ্দিন থেকে ভোলায় যাচ্ছিলেন। ভোলা-চরফ্যাশন সড়কের বাংলাবাজার পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের সামনে বিপরীত দিক থেকে একটি মালবাহী ট্রলির সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কা লাগে। এ সময় মোটরসাইকেল উল্টে ঘটনাস্থলে তিনি নিহত হন।