ভালুকায় পোশাক শ্রমিক বিক্ষোভ, নিহত ২

ঢাকা, সোমবার, ১ জুন ২০২০ | ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ভালুকায় পোশাক শ্রমিক বিক্ষোভ, নিহত ২

ময়মনসিংহ ব্যুরো  ৪:০০ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ০৬, ২০২০

print
ভালুকায় পোশাক শ্রমিক বিক্ষোভ, নিহত ২

ময়মনসিংহের ভালুকায় বকেয়া বেতন-ভাতার দাবিতে বিক্ষোভের সময় পুলিশে ধাওয়া খেয়ে পালাতে গিয়ে ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে দুই শ্রমিক নিহত হয়েছেন। সোমবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার জমিরদীয়া স্কয়ার মাস্টার বাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

 

নিহতরা হলেন- ক্রাউন ওয়্যারস্ গার্মেন্টসের শ্রমিক ও পাশ্ববর্তী ফুলবাড়িয়া উপজেলার বাসিন্দা হারুন অর রশিদ (৩৪) এবং স্কয়ার লিমিটেডে কর্মরত গৌরীপুর উপজেলার বাসিন্দা জুয়েল মিয়া (৩২)।

ভালুকা ভরাডোবা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উযায়ের আল মাহমুদ আদনান জানান, সোমবার সকাল ১০টা থেকে উপজেলার জামিরদিয়া মাস্টারবাড়ী এলাকায় স্থানীয় ক্রাউন ওয়্যারস্ গার্মেন্টস কারখানার শ্রমিকরা দুই ঘন্টা ধরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। এতে মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়।

পুলিশ এসে লাঠিচার্জ ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ সময় ঢাকাগামী একটি ট্রাক দ্রুত যাওয়ার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের ডিভাইডারের ওপরে উঠে উল্টে যায়। এতে ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই দুই শ্রমিক মারা যান। এতে ট্রাকের চালকও গুরুতর আহত হয়েছেন। তাকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ক্রাউন ওয়্যারস্ গার্মেন্টসের শ্রমিকরা জানান, বেতন-ভাতা না দিয়ে পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই আজ (সোমবার) সকালে কারখানা বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। সকালে গিয়ে তারা গেটে কারখানা বন্ধের নোটিস দেখতে পেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন। পরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ বিক্ষোভ শুরু করেন শ্রমিকরা। একই সঙ্গে নিহত শ্রমিকদের হত্যার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন তারা।

স্থানীয়রা জানান, সোমবার সকাল থেকেই বেতন-ভাতার দাবিতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ কর্মসূচি চলছিল। খবর পেয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে আসে পরিবেশ শান্ত করার চেষ্টা করে। এ সময় শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ বাধে। এক পর্যায়ে ইটপাটকেল ছোড়াছুড়ি ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এ সময় জীবন বাঁচাতে পালাতে গিয়ে নিহতের ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে ভালুকা মডেল থানার ওসি মাঈন উদ্দিন জানান, দুটি ঘটনা আলাদা। সকাল থেকে স্কয়ার মাস্টার বাড়ি এলাকার ক্রাউন এ্যাপারেল গার্মেন্টসের শ্রমিকরা বেতন-ভাতার দাবিতে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করছিল। পরে খবর পেয়ে শিল্প পুলিশের টিম ঘটনাস্থলে যান। এ সময় শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ বাঁধে। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও ফাঁকা গুলি ছোড়ে। তখন শ্রমিকরা ছত্রভঙ্গ হয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনার কিছুক্ষণের মধ্যেই ট্রাকচাপায় দুই শ্রমিক নিহত হন।

নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

এদিকে এ বিষয়ে ক্রাউন ওয়্যারস্ গার্মেন্টসের মালিক পক্ষের কারো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।