জীবন দিয়ে বন বাঁচালেন শফিকুল

ঢাকা, শনিবার, ৩০ মে ২০২০ | ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

জীবন দিয়ে বন বাঁচালেন শফিকুল

তানজেরুল ইসলাম, গাজীপুর ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২৯, ২০২০

print
জীবন দিয়ে বন বাঁচালেন শফিকুল

গাজীপুর মহানগরীর রাজেন্দ্রপুর চৌরাস্তা এলাকার অদূরে বাংলা বাজার রোড। গেল শুক্রবার সন্ধ্যায় চারিদিকে নিস্তব্ধতা। তবে হুট করে নিস্তব্ধতা ভেঙে আগুনের পুড়তে থাকে বনের গাছপালা।

মূহুর্তে হৈ চৈ পড়ে যায় চারিদিকে। পুড়তে থাকে বন বিভাগের মূল্যবান বেত বাগান। বাড়ির পাশে এমন ঘটনা দেখে আর বসে থাকতে পারেননি শফিকুল ইসলাম। কেননা তিনি বন বিভাগের কর্মচারী। অফিস সহায়ক হিসেবে কর্মরত ছিলেন ঢাকা বন বিভাগের অধীন গাজীপুরের শ্রীপুর রেঞ্জ কর্মকর্তার কার্যালয়ে।

শফিকুলের স্ত্রী রোকেয়া বেগম জানায়, শফিকুল ছুঁটে বনে গিয়ে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেন। এতে ব্যর্থ হয়ে পাইপ দিয়ে পানি ঢেলে আগুন নিভিয়ে ফেলেন। এ সময় কালো ধোঁয়ায় চারিদিক ছেয়ে যায়। তার অদম্য সাহসিকতায় আগুন নিভে যায়। তবে বাড়ি ফিরে শফিকুলের শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। তিনি অচেতন হয়ে পড়েন। পরে তাকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। গত শনিবার পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

শফিকুল ইসলামের ছোট ভাই হাবিবুর রহমান জানান, স্ত্রী ও তিন মেয়ে রেখে গেছেন শফিকুল। রাজেন্দ্রপুর চৌরাস্তা এলাকায় রাজ্জাকের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন তিনি। স্ত্রী ও সন্তানদের জন্য এক কাঠা জমিও কিনতে পারেননি। তার সম্পদ বলতে তিন সন্তান। তার অকাল মৃত্যুতে তাদের ভবিষ্যত অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে পড়েছে।

ঢাকা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মোহাম্মদ ইউছুপ জানান, শফিকুলের সঙ্গে তার অনেক স্মৃতি জড়িয়ে আছে। বহু বছর ধরে তিনি শফিকুলকে একজন পরিশ্রমী স্টাফ হিসেবে চেনেন। শফিকুলের মৃত্যুতে তিনি গভীর শোক প্রকাশ করেন।