টাঙ্গাইলে তিন ছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০ | ২৯ আষাঢ় ১৪২৭

টাঙ্গাইলে তিন ছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ১০:৫৯ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৮, ২০২০

print
টাঙ্গাইলে তিন ছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে তিন স্কুলছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গত রোববার রাতে উপজেলার সাতকোয়া বন এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় স্কুলছাত্রীদের এক অভিভাবক বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ৫-৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। 

গতকাল সোমবার এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে দুই যুবককে আটক করেছে পুলিশ। ওই তিন ছাত্রী ঘাটাইলের একই স্কুলের শিক্ষার্থী।

মামলা সূত্রে জানা যায়, রোববার বিদ্যালয় থেকে চার ছাত্রী তাদের দুই বন্ধু হৃদয় ও শাহীনের সঙ্গে উপজেলার সাতকোয়া বন এলাকায় বেড়াতে যায়। সন্ধ্যায় ফেরার পথে একদল দুর্বৃত্ত হৃদয় ও শাহীন এবং অটোচালক আশিককে মারপিট করে তাড়িয়ে দেয়। পরে চার ছাত্রীকে অপহরণ করে সাতকোয়া বনের গভীরে নিয়ে যায়। পরে ওই ছাত্রীদের পরিবারের কাছে ফোনে মুক্তিপণ দাবি করে দুর্বৃত্তরা। কিন্তু পরিবারের সদস্যরা টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে দুর্বৃত্তরা তিন ছাত্রীকে ধর্ষণ ও আরেক ছাত্রীকে লাঞ্ছিত করে পালিয়ে যায়। এরপর শিক্ষার্থীরা ওই এলাকার একটি বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নেয়। রাত সাড়ে ১১টার দিকে পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে। এদিকে ছাত্রীদের সঙ্গে ঘুরতে যাওয়া ওই দুই বন্ধুও পলাতক রয়েছে।

ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক বলেন, রোববার এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া অনুষ্ঠান ছিল। কিন্তু ওই ছাত্রীরা স্কুলে আসেনি। শুনেছি বিদ্যালয়ে না এসে তারা বেড়াতে গিয়েছিল। সেখানে এ ঘটনা ঘটে। ঘাটাইল থানার ওসি মাকসুদুল আলম বলেন, এ ঘটনায় অপহরণ ও ধর্ষণ মামলা হয়েছে। ওই চার স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে সোমবার পুলিশ অভিযান চালিয়ে ইউসুফ আলী ও বাবু নামে দুই যুবককে আটক করেছে। অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।