নরসিংদীতে ইউএনওর হস্তক্ষেপে বন্ধ বাল্যবিবাহ

ঢাকা, সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১২ ফাল্গুন ১৪২৬

নরসিংদীতে ইউএনওর হস্তক্ষেপে বন্ধ বাল্যবিবাহ

নরসিংদী প্রতিনিধি ৮:১২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২০, ২০২০

print
নরসিংদীতে ইউএনওর হস্তক্ষেপে বন্ধ বাল্যবিবাহ

নরসিংদীতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে এক স্কুল ছাত্রীর বাল্যবিবাহের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে। সোমবার (২০ জানুয়ারি) দুপুরে এ বিয়ে বন্ধ করে দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাসলিমা আক্তার।

ইউএনও জানান, সদর উপজেলার চিনিশপুর ইউনিয়নে দগরিয়া গ্রামে ইসমাইল হোসেন এর স্কুল পড়ুয়া মেয়ে জেসমিন আক্তারের (১৪) বিয়ে হচ্ছে, এ কথা শুনে ইউএনও নিজেই ইসমাইলের বাড়িতে সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহ আলম, জেলা মহিলা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সেলিনা বেগম ও সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দুজ্জামান সহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে বিয়ে বাড়ীতে ছুটে যান।

ওই বাড়ির পরিবারের সদস্যদের বাল্য বিয়ের আইনগত বিষয়টি তুলে ধরেন। পরে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান কে সাথে নিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয় এই বিয়ে।

স্কুল শিক্ষার্থী জেসমিন আক্তারের পরিবার অঙ্গিকার করে যে প্রাপ্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত জেসমিন আক্তারকে লেখাপড়া শেখাবেন এবং প্রাপ্ত বয়স হলেই বিয়ে দিবেন বলে লিখিত মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পান।