আবরার হত্যায় বিক্ষোভ

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯ | ৩ কার্তিক ১৪২৬

আবরার হত্যায় বিক্ষোভ

ডেস্ক রিপোর্ট ১:৩৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১০, ২০১৯

print
আবরার হত্যায় বিক্ষোভ

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদ ও হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে বিভিন্ন সংগঠন। গতকাল বুধবার এসব কর্মসূচি থেকে দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস রাজনৈতিক দখল মুক্ত করে ছাত্র হত্যাকারীদের বিচার দাবি এবং ভারতের সঙ্গে ফেনী নদীর পানি চুক্তির প্রতিবাদ জানান বক্তারা। তবে কোথাও কোথাও কর্মসূচিতে পুলিশি বাধার খবর পাওয়া গেছে। বিস্তারিত জেলা, উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে-

জাবি : আবরার ফাহাদের হত্যাকারী ছাত্রলীগ নেতাদের ফাঁসি দাবি ও ভারতের সঙ্গে ফেনী নদীর পানি চুক্তির প্রতিবাদে তৃতীয় দিনের মতো বিক্ষোভ মিছিল ও ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়। মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে প্রধান ফটক সংলগ্ন ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে কিছু সময় অবস্থান নেয়। মিছিলে দুই শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে বিক্ষোভ শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে কোটা সংস্কার আন্দোলন জাবি শাখার যুগ্ম-আহ্বায়ক জয়নাল আবেদিন শিশির বলেন, ‘দেশের জন্য কথা বলতে গিয়ে আমাদের ভাই আবরার শহীদ হয়েছে। তাকে নির্মমভাবে খুন করা হয়েছে।’

অপরদিকে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিলে ছাত্রলীগ ধাওয়া করেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক থেকে ছাত্রদলের মিছিলটি শুরু হয়।

পরে মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের অমর একুশে ভাস্কর্যের পাদদেশে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়। এ সময় সেখানে শাখা ছাত্রলীগ নেতা মাহবুবুল হক রাফার নেতৃত্বে ছাত্রদলের নেতা-কর্মীদের ধাওয়া করা হয়। এ সময় বিক্ষোভকারী ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ব্যানার কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করা হয়।

জাবি শাখা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম সৈকত বলেন, আমরা কোনো সহিংসতা চালাতে ক্যাম্পাসে আসিনি। একটি হত্যার বিচার চাইতে এসেছিলাম। কিন্তু সেখানেও ছাত্রলীগ বাধা দিয়েছে। চাইলে পাল্টা হামলা চালাতে পারতাম। কিন্তু আমরা সহাবস্থান চাই। বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনের সঙ্গে কথা হয়েছে। প্রশাসন বলেছে তারা দেখবে।

লক্ষ্মীপুর : বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি ও বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদকে হত্যার প্রতিবাদে লক্ষ্মীপুরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল করা হয়েছে। মিছিলটি শহরের চক বাজার থেকে শুরু হয়ে ঝর্ণা ফার্মেসি এলাকায় গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়।

নেতারা বলেন, খালেদা জিয়াকে কারাবন্দি করে দেশে গণতন্ত্র হত্যা করা হয়েছে। গণতন্ত্র নেই বলেই আবরার হত্যার মত ঘটনা ঘটেছে। প্রত্যেকটি বিশ্ববিদ্যালয়েই সাধারণ ছাত্ররা নির্যাতিত হচ্ছে। আমরা খালেদা জিয়ার মুক্তি ও আবরার হত্যার দ্রুত বিচার চাই।

বগুড়া : আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদ ও জড়িতদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে বগুড়ায় জেলা ছাত্রলীগের (জাসদ) উদ্যোগে মানববন্ধন করা হয়েছে। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বগুড়া সরকারি আযিযুুল হক কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি জিএস জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইমদাদুল হক ইমদাদ, জেলা জাসদের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা ইকবাল হোসেন খান রতন, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল লতিফ পশারী ববি, জোবায়ের হোসেন মোল্লা, অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

অন্যদিকে, জেলা ছাত্রদলের উদ্যোগে নবাববাড়ীস্থ দলীয় কার্যালয়ে বিক্ষোভ সমাবেশ হয়েছে। জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আবু হাসানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নূরে আলম সিদ্দিকী রিগ্যানের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপি আহ্বায়ক কমিটির সদস্য হামিদুল হক চৌধুরী হিরু।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপি আহ্বায়ক কমিটির মীর শাহ্ আলম, মনিরুজ্জামান মনি, শাকিল, জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি ইমরান হোসেন, তারিক মজিদ সোহাগ, বাপ্পি, মানিক, আরিফুল, সরকার ফরিদ, মিল্টন, লায়ন, ডনেল, কলিন্স, সাদ্দাম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা প্রমুখ।

নাটোর : বুয়েট শেরে বাংলা হলের ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে এবং জড়িতদের শাস্তির দাবিতে নাটোরে বিক্ষোভ মিছিল করেছে জেলা ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। শহরের বনলতা পেট্রোল পাম্প এলাকা থেকে জেলা ছাত্রদলের সভাপতি কামরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মারুফ ইসলাম সৃজনের নেতৃত্বে দলের নেতাকর্মীরা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে।

বিক্ষোভ মিছিলটি প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে নাটোর নবাব সিরাজ-উদ-দৌলা সরকারি কলেজের কাছে এসে শেষ হয়। এ সময় বিক্ষোভকারীরা আবরার ফাহাদ হত্যা ঘটনার নিন্দা জানায় ও হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের ফাঁসির দাবি জানিয়ে স্লোগান দেয়।

জামালপুর : শহরের বকুলতলা চত্বরে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন জামালপুর জেলা শাখার আযোজনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে সংগঠনের সভাপতি জাহাঙ্গীর সেলিমের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন উদীচী জামালপুর জেলা সংসদের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আলী ইমাম দুলাল, কবি সাযযাদ আনসারী, জেলা জেএসডির সভাপতি আমীর উদ্দিন, সনাক সদস্য একেএম আশরাফুজ্জামান স্বাধীন, সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন জামালপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক হিল্লোল সরকার, সাংবাদিক তানভীর আহমেদ হীরা প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী একটি পরিবারের সন্তান বুয়েটের মেধাবী শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে নির্মমভাবে হত্যার পর শিবির হিসেবে আখ্যায়িত করা রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র। সরকারকে এ হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু তদন্ত করে প্রকৃত ঘটনা উন্মোচনের দাবি জানানো হয় মানববন্ধন থেকে।

নীলফামারী : আবরার ফাহাদকে হত্যার প্রতিবাদ ও খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। ছাত্রদল নীলফামারী জেলা শাখা উদ্যোগে জেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয় থেকে একটি মিছিল বের করে শহর প্রদক্ষিণ করার সময় মিছিলটি বড় বাজারের দিকে অগ্রসর হলে কালীবাড়ি মোড়ে আটকে দেয় পুলিশ। পরে সেখান থেকে মিছিল নিয়ে আবার দলীয় কার্যালয়ে ফিরে গিয়ে সমাবেসে মিলিত হয়। জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মারুফ পারভেজ প্রিন্সের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি মোকলেছুর রহমান কাজল, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল হোসেন, মোজাম্মেল হক মোজাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস জীবন, প্রচার সম্পাদক রাজু পারভেজ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মোর্শেদ আজম, জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম বাবলা, সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক আহম্মেদ প্রমুখ।

রংপুর : আবরার ফাহাদকে হত্যার প্রতিবাদে রংপুরে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শিক্ষার্থীদের কারণে উত্তাল হয়ে উঠছে রংপুর নগরী। ‘আমরাই পাশে রংপুর’ ফেসবুক গ্রুপসহ বেশ কয়েকটি সংগঠনের ব্যানারে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় বক্তারা বলেন, আবরারকে যারা হত্যা করেছে তারা অজানা কেউ না। তারা যাই হোক খুনি ছাড়া অন্য কিছু না। তাদের কঠোর শাস্তি দিতে হবে।

এদিকে একই দিন দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নগরীর বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল চত্বর এলাকায় আবরার হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন ও সমাবেশ করে। মানববন্ধনে বক্তারা দেশের সব বিচার বহির্ভুত হত্যা-নির্যাতনের সুষ্ঠু বিচার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।

অন্যদিকে আবরার হত্যার প্রতিবাদে রংপুরে ছাত্রদলের পূর্বঘোষিত বিক্ষোভ কর্মসূচি করতে দেয়নি পুলিশ। বেলা সোয়া ১২টার দিকে দলীয় কার্যালয় থেকে মিছিল করে রাস্তায় নামার চেষ্টা করলে নেতাকর্মীদের বাধা দেয় পুলিশ। পরে পুলিশি বেষ্টনীর মধ্য দাঁড়িয়ে স্লোগান দেয় তারা।

অপরদিকে, প্রগতিশীল ছাত্র জোট রংপুর জেলা শাখার উদ্যোগে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়(বুয়েট)এর মেধাবি ছাত্র আবরার রহমান ফাহাদের খুনিদের ফাঁসির দাবিতে রংপরে প্রগতিশীল ছাত্র জোট বিক্ষোভ মিছিল করে।

নেত্রকোণা : খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে নেত্রকোণায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সর্বস্তরের ছাত্র সমাজের ব্যানারে ‘আসুন একসঙ্গে দেশ গড়ি’ এ স্লোগানকে সামনে রেখে নেত্রকোণা প্রেস ক্লাবের সামনের সড়কে এ কর্মসূচি পালন করেন শতাধিক সাধারণ শিক্ষার্থী।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, কর্মসূচির সমন্বয়ক ময়মনসিংহ আনন্দ মোহন কলেজের শিক্ষার্থী হাসিব খান রাফি, নেত্রকোণা সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী সারোয়ার জাহান সানা, সজিব হাসান শেখ, অনিক তালুকদার, আব্দুন নূর, ইমরান খান প্রমুখ।

গাইবান্ধা : আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে গাইবান্ধায় বিক্ষোভ মিছিল বের করার সময় পুলিশ বাধা দেয়। পরে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা দলীয় কার্যলয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করেন। সমাবেশে জেলা ছাত্রদলের সভাপতি খন্দকার জাকারিয়া আলম জীমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি খন্দকার আহাদ আহমেদ।

ছাত্রদলের সভাপতি খন্দকার জাকারিয়া আলম জীম বলেন, বুয়েটের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে ছাত্রলীগের গুণ্ডাবাহিনী নৃশংসভাবে পিটিয়ে হত্যা করেছে। আমরা যখন এ নির্মম হত্যার প্রতিবাদে রাস্তায় নামি তা একশ গজের মধ্যে বিক্ষোভ মিছিলটি পুলিশ আটকে দেয়। এর চাইতে লজ্জার আর কিছু নেই।

এদিকে, প্রগতিশীল ছাত্র জোট গাইবান্ধা জেলা শাখার উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মিছিলটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে ট্রাফিক মোড়ে শেষ হয়।

নারায়ণগঞ্জ : প্রতিবাদ মিছিল ও সমাবেশ করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদল। নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সামনে জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের আয়োজনে ওই সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি শাহেদ আহমেদ। সমাবেশে জেলা ছাত্রদল সভাপতি মশিউর রহমান রনি বলেন, ছাত্রলীগ একদিন শেখ হাসিনাকেও হত্যা করবে। কারণ যে নিজের ভাইকে হত্যা করতে পারে সে সবাইকে হত্যা করতে পারে। এ ছাত্রলীগই শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে দাঁড়াবে। এ সরকার বিরোধী মতের উপর দমন নীতি গ্রহণ করেছে। দেশের পক্ষে স্ট্যাটাস দেওয়ার কারণে একজন দেশপ্রেমিক যুবককে প্রাণ দিতে হলো। কিন্তু একজন আবরার মরলেও জেগে উঠবে লাখো আবরার।

সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন- মহানগর ছাত্রদলের সহ-সভাপতি সাইদুর রহমান, শাহীন, সুমন, রাসেল, যুগ্ম-সম্পাদক আলামিন প্রধান, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম-সম্পাদক মশিউর রহমান শান্ত, ফতুল্লা থানা ছাত্রদল নেতা কায়েস আহমেদ পল্লব, শরীফ হোসেন মানিক প্রমুখ।

ঠাকুরগাঁও : হত্যাকারীদের ফাঁসি এবং ভারতের সঙ্গে সম্পাদিত অসম চুক্তি বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে ঠাকুরগাঁওয়ের প্রগোতিশীল ছাত্রজোট। শহরের চৌরাস্তায় প্রগতিশীল ছাত্রজোটের ব্যানারে এ বিক্ষোভ সমাবেশ কর্মসূচি পালন করা হয়। এ সময় বক্তব্য রাখেন ছাত্র ইউনিয়ন সভাপতি ও প্রগতিশীল ছাত্রজোটের সমন্বয়ক আবু বক্কর সিদ্দীক, সহ-সভাপতি আবু বক্কর, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের জেলা সংগঠক জাকির হোসেন, ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক নেতা রেজওয়ানুল হক রিজু, ছাত্র ফ্রন্টের সাবেক নেতা মাহাবুব আলম রুবেল প্রমুখ।

মুন্সীগঞ্জ : মুন্সীগঞ্জে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মুন্সীগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সামনে সর্বস্তরের ছাত্র-জনতা ও ন্যাশনাল হিউম্যান রাইটস ক্রাইম রিপোর্টার্সের আয়োজনে এ কর্মসূচি পালিত হয়। মানববন্ধনে আবরার ফাহাদ হত্যাকারীদের সর্ব্বোচ্চ শাস্তি এবং দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নৃশংস সহিংশতা বন্ধের দাবি জানানো হয়। এতে শিক্ষক-সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক কর্মীসহ সাধারণ ছাত্র-ছাত্রী অংশ নেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জে মানববন্ধন করেছে জাসদ ছাত্রলীগ। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের সামনে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ নবাবগঞ্জ কলেজ শাখার সভাপতি তসিকুল রেজা খাঁন, সাধারণ সম্পাদক আসিফি ইয়াসির রনি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর শাখার সাধারণ সম্পাদক সুমন ফারুকি, শিক্ষার্থী নূর আলম, তারেক আহম্মেদ প্রমুখ।

যশোর : বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে যশোর জেলা ছাত্রদল। দলীয় কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির খুলনা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত। সমাবেশ থেকে বক্তারা অবিলম্বে আবরার হত্যার সঙ্গে জড়িত ছাত্রলীগ নেতাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।