ক্রাইমের আখড়া আশুলিয়া

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৫ কার্তিক ১৪২৬

ক্রাইমের আখড়া আশুলিয়া

রাসেল ইসলাম আলভী, সাভার ৬:৪৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০৮, ২০১৯

print
ক্রাইমের আখড়া আশুলিয়া

সাভার উপজেলার আশুলিয়া শিল্পাঞ্চল একটি ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা। প্রতিদিনই এখানে জনবসতি বাড়ছে। আর মানুষ বাড়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে সেখানে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটছে। এলাকাবাসী প্রশ্ন তুলছেন পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ভূমিকা নিয়ে। সন্ত্রাস, মাদক, ভূমি দখল, খুন, ছিনতাই, ধর্ষণসহ বিভিন্ন ধরনের অপরাধ প্রায় প্রতিদিনই ঘটে থাকে এখানে। শিল্পাঞ্চল আশুলিয়া এখন যেন এক ক্রাইম জোনে পরিণত হয়েছে।

জানা যায়, আশুলিয়া এলাকায় ডিইপিজেডে পাঁচ শতাধিক ছোটো-বড়ো মিলকারখানা, বিনোদন কেন্দ্রসহ সরকারি ও বেসরকারি বহু প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। ফলে এ অঞ্চলে জনবসতির সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। আশুলিয়া থানা এলাকাটি চারটি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত হলেও জনসংখ্যা তুলনামূলকভাবে বেশি। আশুলিয়া থানা এলাকায় ৩০ লাখের অধিক মানুষের বসবাস। প্রতিদিনই এর সংখ্যা বাড়ছে।

আশুলিয়া অঞ্চলে প্রায় প্রতিদিনই উদ্ধার হচ্ছে নারী কিংবা পুরুষের মরদেহ। উদ্ধারকৃত মরদেহর অধিকাংশই অজ্ঞাতনামা। পুলিশের ধারণা, কোনো সন্ত্রাসী চক্র অন্যত্র হত্যার পর এ অঞ্চলে মরদেহ ফেলে যায়। ফলে অনেক ক্ষেত্রে নিহতের পরিচয় এবং হত্যাকারীদের গ্রেফতার করা সম্ভব হচ্ছে না।

গত বৃহস্পতিবার জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের বিপরীতে ডেইরি গেটের পাশ থেকে রবিউল ইসলাম রবিন নামে এ যুবকের ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়। রবিন হানিফ পরিবহনের কাউন্টার মাস্টার হিসেবে বাইপাইলে কর্মরত ছিলেন। তার বুকে, মাথায়, চোখে ও কপালেসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর আশুলিয়ার পলাশবাড়ি এলাকায় একটি নির্মাণাধীন ভবন থেকে অজ্ঞাত এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। আশুলিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রামকৃষ্ণ জানান, নিহত যুবকের মুখে ফেনা লেগে ছিল। এছাড়া গত দুমাসে আশুলিয়া এলাকায় এক ডজনের অধিক ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। পোশাক কারখানার নারী শ্রমিকরা প্রতিনিয়তই যৌন হয়রানির শিকার হচ্ছেন।

৯ সেপ্টেম্বর রাতে উপজেলার উত্তর গাজীরচট ভূঁইয়াপাড়া মহল্লার ফজল ভূঁইয়ার মালিকানাধীন ভাড়াবাড়িতে এক পোশাক শ্রমিক দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হন। এ ঘটনায় ধর্ষক কাইয়ুম ও তুহিন আলমকে আটক করে পুলিশ। একই দিন উত্তর গাজীরচট এলাকার একটি পরিত্যক্ত কারখানায় চাকরি দেওয়ার কথা বলে এক তরুণীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে শারফিন নামে এক গাড়িচালক।

এ ঘটনায় তরুণীর অভিযোগের ভিত্তিতে রাতেই গাজীরচট এলাকায় অভিযান চালিয়ে শারফিনকে আটক করে পুলিশ। ১৭ আগস্ট আশুলিয়ার ডেন্ডাবর এলাকার নতুনপাড়া মহল্লায় এক উপজাতি গৃহবধূ নিজ বাসায় গণধর্ষণের শিকার হন।

ঢাকা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) সাইদুর রহমান বলেন, সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান চলমান। প্রতিটি অপরাধেরই তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। মাদক নিয়ন্ত্রণে জিরো টলারেন্সে প্রশাসন।