ভৈরবে ভুল চিকিৎসায় যুবকের মৃত্যু

ঢাকা, সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯ | ৬ শ্রাবণ ১৪২৬

ভৈরবে ভুল চিকিৎসায় যুবকের মৃত্যু

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি ৭:২৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৬, ২০১৯

print
ভৈরবে ভুল চিকিৎসায় যুবকের মৃত্যু

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ভেঙে যাওয়া হাতে লাগানো রড খুলতে এসে ট্র্রমা জেনারেল (প্রাইভেট) হাসপাতালে ভুল চিকিৎসার শিকার হয়ে জুয়েল মিয়া নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় তার স্বজনরা হাসপাতালে হামলা ও ভাঙচুর করেছে।

গত বৃহস্পতিবার রাতে শহরের ট্রমা জেনারেল (প্রাইভেট) হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ডা. কামরুজ্জামান আজাদ নামে এক চিকিৎসকে আটক করেছে পুলিশ।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ট্রমা জেনারেল (প্রাইভেট) হাসপাতালটিতে দীর্ঘদিন ধরে গৌরাঙ্গ নামে এক ওয়ার্ডবয় নিজেই একজন অভিজ্ঞ ডাক্তারের ভূমিকা পালন করেন। হাসপাতালে কর্তব্যরত ডাক্তাররা বসে নির্দেশ দেন আর গৌরাঙ্গ কাজ করেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে জুয়েলের বেলায়ও তার ব্যতিক্রম হয়নি।

নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানান, গত দুই বছরেরও বেশি সময় আগে দুর্ঘটনায় জুয়েলের এক হাতের হাড় ভেঙে যায়। ফলে অপারেশনের সময় তার হাতের ভেতরে রড ঢুকানো হয়। গত বৃহস্পতিবার রাতে রড খুলতেই তাকে শহরের ট্রমা জেনারেল (প্রাইভেট) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তাকে হাসপাতালের ওটিতে (অপারেশন থিয়েটার) নিয়ে যাওয়া হয়। ঘণ্টার পর ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও জুয়েলের জ্ঞান ফেরেনি।

ভৈরব থানার ওসি মোখলেছুর রহমান জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। মামলার প্রধান আসামি ডা. কামরুজ্জামান আজাদকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া এ ব্যাপারে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।