পলাশে কাঁচা মরিচের কেজি ৩শ টাকা

ঢাকা, রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ১০ আশ্বিন ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

পলাশে কাঁচা মরিচের কেজি ৩শ টাকা

সিয়াম সরকার, পলাশ (নরসিংদী)
🕐 ৮:০৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৭, ২০২২

পলাশে কাঁচা মরিচের কেজি ৩শ টাকা

নরসিংদীর পলাশের কাচাবাজারে কাচামরিচের দাম এক লাফে ৩০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। তাছাড়া বাজারে বেড়েছে চাল, মুরগি, ডিম, শুকনা মরিচ ও বিভিন্ন সবজির দাম। দশদিনের ব্যবধানে খুচরা বাজারে সরু ও মোটা চাল কেজিতে ২ থেকে ৩ টাকা বেড়েছে। ব্রয়লার ও সোনালি মুরগির দাম কেজিতে বেড়েছে ১৫ টাকা। প্রতি হালি ডিমে বেড়েছে ৩ টাকা। মাছের বাজারও চড়া।

রোববার পলাশ উপজেলার বেশ কয়েকটি বাজারের তথ্য অনুযায়ী এসবের মূল্য বৃদ্ধির খবর জানা যায়। সবজির বাজারে গিয়ে দেখা যায়, বেগুন প্রতি কেজি ৬০টাকা, টমেটো ১১০ টাকা, পটল ৪০ টাকা, মুলা ৫০ টাকা, কাঁচামরিচ ৩০০ টাকা, শশা ৪০ টাকা, গাজর ২০০ টাকা, ধনে পাতা ২০০ টাকা, ঢ্যাঁড়শ ৫০টাকা, চিচিঙা ৬০ টাকা, বরবটি ৮০ টাকা, কাকরোল ৪৫ টাকা, পেঁপে ২৫ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৪০টাকা ও চাল কুমড়া ৩০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। বাজারে আলু প্রতি কেজি ২৫-৩০ টাকা, দেশি পেঁয়াজ ৪০ টাকা, ভারতীয় পেঁয়াজ ৩২ টাকা, দেশি আদা ৮০ টাকা, চীনা আদা ১০০ টাকা, দেশি রসুন ৭০ টাকা, চীনা রসুন ১০০ টাকা, শুকনা মরিচ ৪০০ টাকা, প্যাকেট আটা ৫৫ টাকা, প্যাকেট ময়দা ৬৫ টাকা, খোলা চিনি ৮০ টাকা, প্যাকেট চিনি ৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। মোটা দানার মসুর ডাল ১০০ টাকা ও ছোট দানার মসুর ডাল ১৩০ টাকা কেজি নেওয়া হচ্ছে।

বাজারে চালের দাম বেড়েছে। খুচরা বাজারে সরু মিনিকেট চাল ২ টাকা বেড়ে প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬৮-৭০ টাকা। একইভাবে ২-৩ টাকা বেড়ে ভালো মানের বিআর-২৮ চাল কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫৫-৫৮ টাকা।ফার্মের মুরগির দামও বেড়েছে। সোনালি মুরগির দাম কেজিতে ১৫ টাকা বেড়ে ২৫০ টাকা, ব্রয়লার ১৫ টাকা বেড়ে ১৫০ টাকা ও কক বা লেয়ার ২৬০ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে। ফার্মের ডিমের হালিতে ৩ টাকা বেড়েছে।

প্রতি হালি ডিম এখন ৪৪ টাকা। গরুর মাংসের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬৮০ টাকা। আর খাসির মাংস প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮৫০ থেকে ৯০০ টাকায়। বাজারে মাছের দামও চড়া। বড় রুই ও কাতল ৪০০-৪৫০ টাকা, বড় তেলা পিয়া মাছ ১৭৫ টাকা, চাষের শিং মাছ প্রতি কেজি ৬০০-৭০০ টাকা, কৈ ২৫০-২৭০, পাঙাশ ১৮০-২০০ টাকা, দেশি শিং ৯৫০-১০০০ টাকা, দেশি চিংড়ি (ছোট) ৯০০ থেকে ১ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

ঘোড়াশাল সাদ্দাম বাজারে কেনাকাটা করতে আসা সোনিয়া জানান, ‘বাজারে কাঁচা মরিচের দাম সবচেয়ে বেশি বেড়েছে। এছাড়াও অন্যান্য জিনিসের দামও বেড়েছে। শুক্রবার রাতে জ্বালানি তেলের দাম সরকার বাড়িয়ে দেওয়ার কারণে সামনে সবকিছুর দাম আরও বাড়বে। এভাবে দাম বাড়তে থাকলে সংসারের খরচ অনেক বেড়ে যাবে। আর্থিক সমস্যায় অনেক কষ্টে দিন পার করতে হবে। সবজির দোকানদার ঘোড়াশাল বাজারের নাহিদ জানায়, চাহিদার তুলনায় বাজারে কাচামরিচ সহ অন্যান্য সবজির সরবরাহ কম, এ কারণে দাম হঠাৎ বেড়ে গেছে।

খুচরা মুদি দোকানি আনোয়ার হোসেন দাউদ বলেন, মাত্র দুই সপ্তাহের ব্যবধানে কয়েকটি পণ্যের দাম সামান্য কিছু বেড়েছে। তবে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে মুদি পণ্যে এখনো প্রভাব পড়েনি।’ এমন পরিস্থিতি চলতে থাকলে সামনে হয়তো মুদি দোকানেও পণ্যের দাম বাড়বে।

 
Electronic Paper