সখের কফি সঠিকভাবে সংরক্ষণের উপায়

ঢাকা, বুধবার, ১ ডিসেম্বর ২০২১ | ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

সখের কফি সঠিকভাবে সংরক্ষণের উপায়

পাকা রাঁধুনি ডেস্ক
🕐 ২:৩৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৪, ২০২১

সখের কফি সঠিকভাবে সংরক্ষণের উপায়

কফি কি নষ্ট হয়? প্রশ্নের উত্তর কিছুটা জটিল। তবে নষ্ট না হলেও হারাতে পারে স্বাদ ও গন্ধ। সাশ্রয়ে ভালো কফি পেয়ে বেশি করে কেনা, দেশের বাইরে থেকে আসা কারও কাছ থেকে উপহার কিংবা হয়ত কোনো অফার ছিল তাই প্রয়োজনের বেশি কফি কিনে ফেলেছেন। তবে এতই বেশি কিনেছেন যে তা শেষ হতে কয়েক মাস লেগে যেতে পারে।

তাই এখন চিন্তা হচ্ছে এই কফি তত দিন ভালো থাকবে কি-না? আবার কফি আদৌ নষ্ট হয় কি-না সেটাও যেন সঠিক জানা নেই।

কফি কী নষ্ট হয়?
অন্যান্য খাবার অনেকদিন রেখে দিলে যেমন তাতে ছত্রাক জমে, পচে যায়, ‘কফি বিন’ বা গুঁড়া করা কফির ক্ষেত্রে তা হয় না। কক্ষ তাপমাত্রাতেই লম্বা সময় কফি ভালো থাকে। কৌটার গায়ের মেয়াদ শেষ হয়ে গেলেও সেই কফি পান করলে শরীর খারাপ হবে না, তবে স্বাদ হয়ত নষ্ট হয়ে যাবে।

তবে ‘বিন’ হোক কিংবা গুঁড়া, কফি ভিজে গেলে তা বেশিক্ষণ ভালো থাকেনা।

তৈরি কফি অনেকক্ষণ রেখে দিলে তাতে ছত্রাক জন্মাবে। যে কৌটায় কফি রাখা আছে তাতে কয়েক ফোটা পানি পড়লেই পুরো কফি নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

তাই কফি কৌটা থেকে নেওয়ার সময় অবশ্যই শুকনা চামচ ব্যবহার করতে হবে।

কফি দীর্ঘদিন স্থায়ি হলেও, এর স্বাদ ও গুণগত মান কমতে থাকে সময়ের সঙ্গে। কারণ হল অক্সিজেন। বাতাসের সংস্পর্শে আসার কারণে যত পুরানো হবে, ততই স্বাদ ও ঘনত্ব হারাবে কফি। তাই সঠিক সংরক্ষণের উপায় না থাকলে ‘কফি বিন’ কেনার এক মাসের মধ্যে আর গুঁড়া কফি দুই সপ্তাহের মধ্যেই পান করে ফেললে সর্বোচ্চ স্বাদ পাবেন।

কফি সংরক্ষণ
গুঁড়া কফির তুলনায় ‘কফি বিন’ বেশি দিন স্বাদ ও মান ধরে রাখতে পারে। তাই যদি প্রতিবার কফি বানানোর সময় কফি ‘বিন গুঁড়া’ করা সম্ভব হয় তবে সেটা কেনাই শ্রেয়।

আর কফির নষ্ট হওয়ার প্রধান কারণ যেহেতু বাতাস তাই রাখতে হবে বায়ুরোধক কৌটায়।

তবে দীর্ঘদিন সংরক্ষণ করতে হলে শুধু বায়ুরোধক কৌটা যথেষ্ট নয়, কৌটার ভেতরটা পুরোপুরি বায়ুশূন্য বা ‘ভ্যাকিউম’ হতে হবে।

তাপ ও সূর্যের আলো থেকেও দূরে রাখতে হবে।

কফি ফ্রিজে রাখা যাবে না। কারণ ফ্রিজে থাকা অন্যান্য সকল কাঁচা ও রান্না করা খাবারের গন্ধ কফিতে মিশে তার স্বাদ ও গন্ধ নষ্ট করবে। পাশাপাশি ফ্রিজে রাখলে কফির প্রাকৃতিক ‘ময়েশ্চার’ শুকিয়ে যাবে, যা কফির স্বাদ নষ্ট করবে আরও দ্রুত।

‘ফ্রিজার’ বা ‘ডিপ ফ্রিজ’য়ে কফি সংরক্ষণ করা যেতে পারে। সেজন্য কফির আস্ত ব্যাগটিকে একটি ‘জিপলক’ ব্যাগে নিতে হবে। ভেতর থেকে সকল বাতাস বের করে দিয়ে ‘ফ্রিজার’য়ের রাখতে হবে। যখন আবার ব্যবহার করবেন তখন বরফ পুরোপুরি না গলা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

তবে মনে রাখতে হবে এই কফি আবারও ফ্রিজে রাখা যাবে না, কারণ তাতে কফির স্বাদ ও মান হারাবে।

তৈরি কফি সংরক্ষণ
লম্বা সময় তৈরি কফি গরম রাখতে চাইলে ‘কফি মেইকার’ কিংবা ফ্লাস্ক ব্যবহার করতে হবে। চুলায় বসিয়ে রাখলে পুড়ে যাবে। আবার বার বার গরম করলে কফি বেশি কড়া হয়ে যাবে।

তৈরি ‘কোল্ড কফি’ ঢাকনা দেওয়া পাত্রের ভেতর ঢেলে তিন থেকে চার দিন পর্যন্ত ফ্রিজে রেখে পান করা যায়।

 
Electronic Paper