সেমাইয়ের ৫ পদ

ঢাকা, বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯ | ১২ আষাঢ় ১৪২৬

সেমাইয়ের ৫ পদ

পাঁকা রাঁধুনি ডেস্ক ৬:১১ অপরাহ্ণ, জুন ০৩, ২০১৯

print
সেমাইয়ের ৫ পদ

ঈদে মিষ্টি কিছু মুখে দেওয়া ভালো। আমরা বাংলাদেশিরা মিষ্টান্ন হিসেবে প্রথমেই রাখি সেমাইকে। সেমাই রান্না যেমন সহজ তেমন খুব দ্রুত এটি রান্না করা যায়। তাই প্রতিটি ঘরে ঘরে ঈদের দিন প্রথম যে পদ রান্না হয় তা হলো সেমাই। একই রকম রেসিপির সেমাই সবসময় কি মুখে রোচে? এবার ঈদে তাই রান্না করতে পারেন ভিন্ন কিছু রেসিপি। এখানে সেমাইয়ের কিছু রেসিপি দেওয়া হলো-

মালাই ক্ষীর সেমাই
উপকরণ : দুধ দেড় লিটার, চিনি-পরিমাণমতো, মালাই-আধা কাপ, কাজু, কিশমিশ, পেস্তা, কাঠবাদাম-আধা কাপ, সেমাই-এক কাপ, এলাচ, দারুচিনি-৬/৭, ঘি-২ টেবিল চামচ, জাফরান-সামান্য।
প্রস্তুত প্রণালী : প্রথমে বাদামগুলো খোসা ছাড়িয়ে মোটা কুঁচি করে নিন। এরপর দের লিটার দুধ জ্বাল দিয়ে অর্ধেকের কম পরিমাণ করে রাখুন। এবার প্যানে ঘি দিয়ে গরম করুন। এরপর এলাচ দারুচিনি দিয়ে একটু ভাজুন। এবার বাদাম কুঁচি, কিশমিশ ও সেমাই দিয়ে দিন। মৃদু আঁচে হালকা ভাজুন। ঘ্রাণ ছাড়লেই ঘন দুধ দিয়ে দিন। নেড়ে নেড়ে রান্না করুন। সেমাই সিদ্ধ হয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে দুধ ঘন হয়ে আসবে। সেমাই সিদ্ধ হয়ে গেলে মালাই দিয়ে দিন। জাফরান দিন। এরপর ভালো করে মিশিয়ে চুলা বন্ধ করে ফেলুন।

শুকনো লাচ্ছা
উপকরণ : লাচ্ছা সেমাই ১ প্যাকেট, চিনি স্যুপের চামচের ৩ চামচ (চাহিদা মতোন কমবেশি করতে পারেন), ঘি ২ চা চামচ, কিশমিশ ইচ্ছেমতোন।
প্রণালী
পাত্রে ঘি গরম করে ওতে কিশমিশ দিয়ে দেবেন। একটু ভাজা হলে সেমাই দিয়ে হালকা আঁচে নাড়তে থাকুন। সেমাই ভাজা হয়ে লাল হয়ে এলে তাতে চিনি দিয়ে নেড়েচেড়ে নামিয়ে ফেলুন। হয়ে গেল শুকনো লাচ্ছা সেমাই।

দুধ সেমাই
উপকরণ : সেমাই ২০০ গ্রাম (৪০০ গ্রামের প্যাকেট দিয়ে ছোট পরিবার দুই পদের সেমাই রান্না করা যায়), চিনি হাফ কাপ (আপনার ইচ্ছা কেমন মিষ্টি করবেন, খেয়াল করে), এলাচি ৩টা, দারুচিনি ৩ টুকরা, তেজপাতা ১টা, এক লিটার দুধ।
প্রণালী : এক লিটার দুধ ভালো করে গরম করে কমাতে থাকুন, তাতে হাফ কাপ চিনি দিয়ে দিন (চিনি আপনার ইচ্ছার ওপর)। এলাচি, দারুচিনি এবং থাকলে একটা তেজপাতা দিন। প্যাকেট থেকে সেমাই হাফ করে (২০০ গ্রাম) নিন। তার আগে খালি একটা গরম কড়াইতে সেমাইগুলো ভেজে নিন (তেল ছাড়াই ভালো, অনেকে তেল বা সামান্য ঘি দেন। ইচ্ছে হলে আপনিও দিতে পারেন)। মচমচে হলে তা গরম দুধে ঢেলে দিন। হালকা গরম থাকতেই পরিবেশন করুন।

রেশমি সেমাই
উপকরণ : সেমাই ২ কাপ, চিনি ২ কাপ, জর্দার রং সামান্য, ঘি আধা কাপ, এলাচ ও দারচিনি চারটি করে, গুঁড়োদুধ আধা কাপ, আনারস আধা কাপ, কিশমিশ, পেস্তাবাদাম ও কাঠবাদাম ১ কাপ, লবণ এক চিমটি।
প্রণালী : কিশমিশ, কাঠবাদাম ও পেস্তা বাদাম অল্প ঘি দিয়ে ভেজে নিতে হবে। সেমাই বাদামি করে ভেজে ঠা-া করতে হবে। গরম পানিতে দিয়ে ভাপে ছেঁকে নিতে হবে। আনারস কুরিয়ে রস ছেঁকে ছোবাটা আধা কাপ মেপে নিতে হবে। এখন ভাপা সেমাই, চিনি, আনারসের ছোবা, এলাচ, দারচিনি গুঁড়া, লবণ ও জর্দার রং সামান্য গুলে দিতে হবে। তারপর একসঙ্গে মাখতে হবে। এবার পাত্রটি একটি তাওয়ায় অল্প জ্বালে দমে বসাতে হবে। আঘা ঘণ্টা পর পাত্রের ঢাকনা খুলে নেড়ে দিতে হবে।

সেমাই জর্দা
উপকরণ : কুলসন সেমাই-১ প্যাকেট, চিনি-২ কাপ, নারকেল কুড়ানো-১ কাপ, কিশমিশ-২ টেবিল চামচ, চীনাবাদাম (ভাজা)-৩ টেবিল চামচ, দারুচিনি-৩ টুকরো, তেজপাতা-২টা, ঘি-৪ টেবিল চামচ, পানি-২ কাপ, লবণ-পরিমাণমতো।
প্রস্তুত প্রণালী : প্রথমে চুলায় কড়াই বসান। এরপর কড়াইতে ঘি দিয়ে গরম করুন। ঘি সামান্য গরম হলে ঘি দিন। এবার প্যাকেট সেমাইয়ের অর্ধেকটা ঘিয়ে ঢেলে দিয়ে ১০-১৫ মিনিট নাড়ুন যাতে সেমাইটা ঘিয়ে ভাজা হয়। এবার এতে কুড়ানো নারকেল দিয়ে নাড়তে থাকুন। কিছুক্ষণ পর পানি দিয়ে চুলার আঁচ কমিয়ে নাড়তে থাকুন।