নোয়াখালীতে শিক্ষার্থীদের প্রতীকী পরীক্ষা

ঢাকা, রবিবার, ২২ মে ২০২২ | ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

নোয়াখালীতে শিক্ষার্থীদের প্রতীকী পরীক্ষা

পরীক্ষার দাবিতে

নিজস্ব প্রতিবেদক, নোয়াখালী
🕐 ৪:৫০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৪, ২০২২

নোয়াখালীতে শিক্ষার্থীদের প্রতীকী পরীক্ষা

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান ও ঘোষিত পরীক্ষা স্থগিত নয়, স্বাস্থবিধি মেনে পরীক্ষার দাবীতে নোয়াখালীতে প্রতীকী পরীক্ষা, মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে বিভিন্ন কলেজের পরীক্ষার্থীরা। 

সব চলে সব হয়, পরীক্ষা নিতে কিসের ভয়। শিক্ষা ক্ষেত্রে বৈষম্য, মানি না মানবো না। খেলা হয় মেলা হয়, পরীক্ষা নিতে কিসের ভয়’সহ নানা স্লোগাসে এ কর্মসূচী পালন করে তারা।

সোমবার সকালে জেলা প্রেসক্লাবের সামনে সাধারণ শিক্ষার্থীর ব্যানারে অনুষ্ঠিত এ কর্মসূচীতে নোয়াখালী সরকারি কলেজ, সোনাপুর ডিগ্রি কলেজ’সহ বিভিন্ন কলেজের পরীক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন। পরে তারা একটি বিক্ষোভ মিছিল ও সড়কে অবস্থান নিয়ে প্রতীকী পরীক্ষা দেন।

কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন, নোয়াখালী সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী মো. নাঈম উদ্দিন, ফয়সাল আবেদিন ও সোনাপুর ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থী নাঈমা সুলতানা মাহা’সহ অনেকে।

বক্ত্যরা বলেন, চলমান অনার্স (সম্মান) পরীক্ষার ৬টি বিষয় ইতোমধ্যে শেষ হয়ে গেছে। কিন্তু হঠাৎ করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিনের সকল পরীক্ষা স্থগিত করায় বাকি ৩টি বিষয়ের পরীক্ষা নিয়ে অনিশ্চয়তায় পড়েছেন তারা। দেশের বিভিন্ন স্থানে মেলা হচ্ছে, শপিংমলে মানুষের ভিড়, অফিস আদালত আগের গতিতে চলছে, স্টেডিয়ামে খেলা হচ্ছে, করোনার কারনে শুধু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কেন বন্ধ থাকবে, পরীক্ষা কেন স্থগিত করা হবে।

শিক্ষার্থীরা আরও বলেন, করোনার কারণে বার বার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় শিক্ষাখাত পিছিয়ে যাচ্ছে। নির্দিষ্ট সময়ে পরীক্ষা না দিতে পারায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষিত বেকার হওয়ার সম্ভবনা বাড়ছে। দীর্ঘসময় ধরে একই শ্রেণিতে পড়ে থাকার কারণে প্রতিষ্ঠানে তাদের খরচ বাড়ছে, কিন্তু প্রতিটি শিক্ষার্থীর পরিবারের পক্ষে এ খরচ বহন করা সম্ভব হয়না। ২০১৬-১৭ সেশনে একই বর্ষে আমরা গত ২-৩ বছর ধরে পড়ে আছি, কয়েকদিন আগে অনার্স চতুর্থ বর্ষের চুড়ান্ত পরীক্ষা শুরু হলেও হঠাৎ করে তা স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে। অতিবিলম্বে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালু করে পরীক্ষা নেওয়ার দাবী জানান আন্দোলনকারীরা।

 
Electronic Paper