শৈল্পিক হচ্ছে উপবন পর্যটন কেন্দ্র

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ মার্চ ২০২১ | ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭

শৈল্পিক হচ্ছে উপবন পর্যটন কেন্দ্র

বান্দরবান প্রতিনিধি ৮:০৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২১, ২০২১

print
শৈল্পিক হচ্ছে উপবন পর্যটন কেন্দ্র

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় অবস্থিত উপবন পর্যটন কেন্দ্র। প্রতিদিন এখানে পর্যটকদের আগমন ঘটলেও এবার কর্তৃপক্ষ পর্যটকদের বাড়তি বিনোদনের জন্য তৈরি করছে নানান স্থাপনা। আর শৈল্পিক এই নতুনত্বে আসবে আরও অসংখ্য পর্যটক। বাড়তি বিনোদনের পাশাপাশি ভ্রমণে আরও বাড়তি আনন্দ উপভোগ করতে পারবে পর্যটকরা এমনটাই বলছে কর্তৃপক্ষ।

নাইক্ষ্যংছড়ি মূল বাজার হতে মাত্র এক কিলোমিটার দূরে অবস্থিত মনোরম এই প্রাকৃতিক সৌন্দর্র্যময় স্থানটি। এই পর্যটন কেন্দ্রে রয়েছে বিশাল লেক আর লেকের ওপর রয়েছে আকর্ষণীয় ঝুলন্ত সেতু। শুধু তাই নয় উপবন পর্যটনটি নতুনভাবে সজ্জিত করার জন্য প্রবেশপথ থেকে শুরু করে বিভিন্ন পয়েন্টে শৈল্পিকরূপে তৈরি হচ্ছে রেলিং।

পর্যটকদের চলাচলের জন্য আকর্ষণীয় সিঁড়ি, চোখ জুড়ানো আকর্ষণীয় চেয়ার-টেবিল, নতুন সাংস্কৃতিক মঞ্চ এবং শিশুপার্কসহ নির্মাণ করা হচ্ছে আরও নতুন নতুন ভিউ পয়েন্ট।

সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৬ সালে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় পর্যটনস্পট হিসেবে গড়ে ওঠে উপবন পর্যটন কেন্দ্রটি। আর সেই থেকে ধীরে ধীরে পরিচিতি লাভ করে। এদিকে উপবন পর্যটন কেন্দ্রটি বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় হলেও কক্সবাজার থেকে মাত্র ৩২ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

তাই দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা পর্যটকদের এই পর্যটন কেন্দ্রে ভ্রমণ করতে নানামুখী উন্নয়ন কাজ দ্রুত বাস্তবায়ন করে পর্যটন শিল্পের উন্নয়ন অব্যাহত রয়েছে বলে জানান প্রশাসনের কর্মকর্র্র্তারা।

ইউএনও সাদিয়া আফরিন কচি জানান, পর্যাপ্ত বাজেট পেলে উপবন পর্যটন কেন্দ্রটি আরও সুন্দরভাবে সাজানো হবে। একটি কনফারেন্স রুম স্থাপন করা হবে। পাশাপাশি একটি রেস্টুরেন্ট তৈরিসহ আরও বেশ কিছু ভিউ পয়েন্ট তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে।