শফীর পদে বাবুনগরী

ঢাকা, সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০ | ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

শফীর পদে বাবুনগরী

চট্টগ্রাম ব্যুরো ৯:৩৯ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০২০

print
শফীর পদে বাবুনগরী

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীকে ফটিকছড়িতে অবস্থিত দেশের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জামিয়া আরাবিয়া নছিরুল ইসলাম নাজিরহাট বড় মাদ্রাসার মুতাওয়াল্লি নিযুক্ত করা হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে বাবুনগরী প্রয়াত শাহ আহমদ শফীর স্থলাভিষিক্ত হলেন। গতকাল বুুধবার সকাল ১১টায় অনুষ্ঠিত মাদ্রাসার মজলিসে শুরার বৈঠকে তাকে এ দায়িত্ব দেওয়া হয়। একই বৈঠকে শুরা কমিটি মুফতি হাবিবুর রহমান কাসেমিকে মুহতামিম নির্বাচিত করে। মাদ্রাসার শুরা কমিটির সদস্য মেখল মাদ্রাসার মুহতামিম আল্লামা নোমান ফয়জী গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন। 

তিনি বলেন, সকাল ১১টা থেকে শুরা কমিটির বৈঠক শুরু হয়। কমিটির বৈঠকে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীকে মাদ্রাসার মুতাওয়াল্লি করা হয়। পাশাপাশি মাওলানা হাবিবুর রহমান কাসেমিকে মাদ্রাসার মুহতামিম, মাওলানা ইয়াহিয়াকে নায়েবে মুহতামিম এবং মাওলানা হাফেজ ইসমাইলকে মুঈনে মুহতামিম করা হয়। আগামী শুরা বৈঠক পর্যন্ত তারা দায়িত্ব পালন করবেন।

গত ২৭ মে মাদ্রাসার মুহতামিম আল্লামা শাহ মুহাম্মদ ইদ্রিস ইন্তেকাল করলে সহকারী পরিচালক মুফতি হাবিবুর রহমানকে ভারপ্রাপ্ত মুহতামিমের দায়িত্ব দেয় শুরা কমিটি। পরবর্তীতে মাদ্রাসার শুরা সদস্য হাটহাজারী বড় মাদ্রাসার প্রয়াত পরিচালক আল্লামা আহমদ শফী মাওলানা সলিমুল্লাহকে মুহতামিম ঘোষণা করেছেন বলে নিজেকে মুহতামিম দাবি করেন মাদ্রাসা শিক্ষক মাওলানা সলিমুল্লাহ। এতে বিভক্ত হয়ে পড়েন শিক্ষক, ছাত্র ও এলাকাবাসী। এ পরিস্থিতিতে বিক্ষুব্ধ ছাত্রদের তীব্র আন্দোলনের মুখে মাদ্রাসা ত্যাগ করতে বাধ্য হন মুহতামিম দাবিদার মাওলানা সলিমুল্লাহ। স্থানীয় সংসদ সদস্য নজিবুল বশর মাইজভা-ারির হস্তক্ষেপে ছাত্ররা শান্ত হন। গতকাল মজলিসে শুরার বৈঠকে জুনায়েদ বাবুনগরীকে মাদ্রাসার মুতাওয়াল্লির দায়িত্ব দেওয়া হয়। এর মধ্য দিয়ে বাবুনগরী প্রয়াত শাহ আহমদ শফীর স্থলাভিষিক্ত হলেন।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন শুরা কমিটির সদস্য বাবুনগর মাদ্রাসার মুহতামিম আল্লামা মুহিবুল্লাহ বাবুনগরী, পটিয়া মাদ্রাসার মুহতামিম আল্লামা আব্দুল হালিম বুখারী, হাটহাজারী মাদ্রাসার শায়খুল হাদিস আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী, ফটিকছড়ি তালিমুদ্দীন মাদ্রাসার মুহতামিম আল্লামা হাফেজ কাছেম, মেখল মাদ্রাসার মুহতামিম আল্লামা নোমান ফরাজি, নানুপুর ওবাইদিয়া মাদ্রাসার মুহতামিম আল্লামা সালাউদ্দিন, জিরি মাদ্রাসার মুহাতামিম আল্লামা খোবাইব, ফতেহপুর মাদ্রাসার মুহতামিম আল্লামা মাহমুদুল হাছান, ঢাকা খিলগাঁও মাদ্রাসার মুহতামিম আল্লামা নুরুল ইসলাম জিহাদী, বসুন্ধরা মাদ্রাসার মুহতামিম আল্লামা মুফতি আরশাদ রহমানি, ওলিখান মসজিদের খতিব কারি আরওয়ার প্রমুখ।