তিন মামলায় দেলোয়ার ৭ দিনের রিমান্ডে

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০ | ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

বিবস্ত্র করে নির্যাতন

তিন মামলায় দেলোয়ার ৭ দিনের রিমান্ডে

নোয়াখালী প্রতিনিধি ১:২৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০২০

print
তিন মামলায় দেলোয়ার ৭ দিনের রিমান্ডে

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নে গৃহবধূকে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি দেলোয়ার হোসেন দেলুর ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। এর আগে তিনটি মামলায় ১৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে তাকে আদালতে হাজির করে বেগমগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ।

রোববার সকালে রিমান্ড চেয়ে দেলোয়ারকে নোয়াখালী চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করেন ধর্ষণ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই হাবিবুর রহমান এবং অস্ত্র ও বিষ্ফোরক মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মীর হোসেন।

সহকারি পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) সাইফুল ইসলাম হারুন জানান, সকালে দেলোয়ারকে ধর্ষণ মামলায় ৭ দিন, অস্ত্র মামলায় ৫ দিন ও বিষ্ফোরক মামলায় ৫ দিনসহ মোট ১৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ২নং আমলী আদালতে হাজির করা হয়। আদালতের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মাসফিকুল হক শুনানি শেষে ধর্ষণ মামলায় ৫ দিন ও অপর দু’টি মামলায় ২ দিনসহ দেলোয়ারের মোট ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এছাড়াও বেগমগঞ্জ থানার দু’টি হত্যা মামলায় দেলোয়ার হোসেনকে (শোন এরেস্ট) সমন ছাড়াও গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ২ সেপ্টেম্বর রাতে ভিকটিমের আগের স্বামী তার সাথে দেখা করতে তার বাবার বাড়ি একলাশপুর ইউনিয়নের জয়কৃষ্ণপুর গ্রামে এসে তাদের ঘরে ঢুকেন। বিষয়টি দেখেন স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ী ও দেলোয়ার বাহিনীর প্রধান দেলোয়ার।

রাত ১০টার দিকে দেলোয়ার তার লোকজন নিয়ে ওই নারীর ঘরে প্রবেশ করে পর পুরুষের সাথে অনৈতিক কাজ ও তাদের কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাকে মারধর শুরু করেন। এক পর্যায়ে পিটিয়ে নারীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারন করে।

৪ অক্টোবর দুপুরে ওই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে জেলায় তথা দেশব্যাপী তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন ও পর্ণোগ্রাফী মামলা দু’টি পিবিআই তদন্ত করছে। গৃহবধূর দায়ের করা ধর্ষণ, র‌্যাবের করা বিষ্ফোরক ও অস্ত্র আইনে মামলা তিনটি বেগমগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ তদন্ত করছে।