চট্টগ্রামে ঊর্ধ্বমুখী করোনা সংক্রমণ

ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ১০ আশ্বিন ১৪২৭

চট্টগ্রামে ঊর্ধ্বমুখী করোনা সংক্রমণ

চট্টগ্রাম ব্যুরো ১০:১০ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১২, ২০২০

print
চট্টগ্রামে ঊর্ধ্বমুখী করোনা সংক্রমণ

সপ্তাহের বেশি হয়ে গেছে ঈদুল আজহার ছুটি। ফলে ছুটি শেষে এখন প্রায় স্বাভাবিক বন্দরনগরী চট্টগ্রাম। এরই সঙ্গে, স্বরূপে ফিরতে শুরু করেছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণও। ঈদের ছুটিতে দুই অংকে নেমে আসা দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা এখন আবারও দেড়শ ছুঁইছুঁই।

এক সপ্তাহ আগে ঈদের ছুটিতে (৩ আগস্ট) চট্টগ্রামের মাত্র দুটি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা হয়। এদিন নতুন করে ১৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এর একদিন আগে ২ আগস্ট শনাক্ত হয় মাত্র ৯ জন রোগী।

অথচ গতকাল ৮২৫ নমুনায় ১৪৯ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ৯৬ জন নগরের ও ৫৩ জন বিভিন্ন উপজেলার।

এর আগে গত মঙ্গলবার ৬৯২ নমুনায় ১১৮ জন করোনা রোগী শনাক্তের তথ্য জানিয়েছিল সিভিল সার্জন অফিস। সোমবার এ সংখ্যা ছিল ১৬০ জন।

এ নিয়ে চট্টগ্রামে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৪৯১ জনে। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় কেউ করোনায় মারা যাননি। একই সময়ে সুস্থ হয়েছেন ৬৫ জন। গতকাল বুধবার সকালে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্রে এসব তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।

সূত্র জানায়, গত মঙ্গলবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ১২৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩৭ জনের করোনা মিলেছে। এর মধ্যে ৯ জন নগরের ও ২৮ জন উপজেলার বাসিন্দা। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসে (বিআইটিআইডি) ২১৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় নগরের ২৮ জনের ও উপজেলার চারজনের দেহে করোনার জীবাণু পাওয়া গেছে।

এছাড়া চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ১৬২ জনের নমুনা পরীক্ষায় নগরের ১৫ ও উপজেলার ১১ জন, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ^বিদ্যালয় ল্যাবে ১৩২ জনের নমুনা পরীক্ষায় নগরের চার ও উপজেলার পাঁচজন, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের আটজনের নমুনা পরীক্ষায় একজন, বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ১২০ জনের নমুনা পরীক্ষায় নগরের ২৪ ও উপজেলার দুইজন এবং শেভরন ল্যাবে ৫৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় নগরের ১৬ ও উপজেলার দুইজনের করোনা মিলেছে।

উপজেলায় আক্রান্তদের মধ্যে বাঁশখালীতে একজন, আনোয়ারায় দুইজন, পটিয়ায় দুইজন, বোয়ালখালীতে ছয়জন, রাঙ্গুনিয়ায় চারজন, রাউজানে আটজন,

ফটিকছড়িতে ১০, হাটহাজারীতে ১১, সন্দ্বীপে চারজন, মিরসরাইয়ে দুইজন ও সীতাকু-ে তিনজন রয়েছেন।