ডায়াবেটিস রোগীর আজীবন চিকিৎসা

ঢাকা, শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ডায়াবেটিস রোগীর আজীবন চিকিৎসা

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি ৮:৪১ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৪, ২০১৯

print
ডায়াবেটিস রোগীর আজীবন চিকিৎসা

লক্ষ্মীপুর ডায়াবেটিক হাসপাতালের অধীনে ২৪ হাজার ১১৭ জন রেজিস্ট্রিকৃত ডায়াবেটিস রোগী রয়েছে। দুই হাজার টাকা ফি দিয়ে রোগীকে এখানে সদস্য হতে হয়। আর এতেই চলে আজীবন চিকিৎসা। এরপর থেকে শুধু রক্ত ও সুগার পরীক্ষার জন্য ১০০ টাকা করে ফি নেয়া হয়।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, রোগীর চিকিৎসার জন্য অতিরিক্ত টাকা খরচ হয় না। একবার সদস্য হলেই পরবর্তীতে ১০০ টাকা দিয়েই চিকিৎসা নিতে পারেন। কিন্ত এটি নিয়ন্ত্রণে প্রতিনিয়ত ওষুধ সেবন করতে হয়। সময়মতো ডাক্তারী পরীক্ষার মাধ্যমে চিকিৎসা কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে হবে। চিকিৎসা ও ওষুধ সেবন অব্যাহত না রাখলে চোখ-কিডনি ও হার্টে সমস্যা দেখা দেয়। শিশুরাও এই রোগে আক্রান্ত হয়। তবে ৩০ বছর ওপরের মানুষই এই রোগে বেশী আক্রান্ত।


জেলা ডায়াবেটিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন বলেন, এখানে শতকরা ৩০ শতাংশ রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা দেওয়া হয়। আবার গরিব রোগীদেরকেও বিনামূল্যে চিকিৎসা দিয়ে আসছি। অনেকেই নির্ধারিত ফি দিয়ে চিকিৎসা নিতে পারেন না। তাদের জন্য বিশেষভাবে ছাড় দেওয়া হয়।

লক্ষ্মীপুর ডায়াবেটিক হাসপাতালের কনসালটেন্ট মো. বেলায়েত হোসেন পাটওয়ারী বলেন, ডায়াবেটিস রোগীদের নিয়মিত চিকিৎসা ও ওষুধ সেবন করতে হবে। এর থেকে মুক্ত হওয়া সম্ভব নয়, তবে নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব। নিয়মিত হাঁটতে ও ব্যায়াম করতে হবে। রোগীদেরকে খাবারের বিষয়েও সচেতন হতে হবে।