চিন্তায় ফেনীর খামারিরা

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯ | ২৮ কার্তিক ১৪২৬

গরুর লাম্পি স্কিন রোগ

চিন্তায় ফেনীর খামারিরা

ফেনী প্রতিনিধি ১:২০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ০৭, ২০১৯

print
চিন্তায় ফেনীর খামারিরা

ফেনীর সোনাগাজীতে শহর ও গ্রামাঞ্চলের খামারগুলোতে গরুর মধ্যে লাম্পি স্কিন রোগ (এলএসডি) ছড়িয়ে পড়ায় বাজারের ফার্মেসিগুলোতে অ্যান্টিবায়োটিক, ব্যাথানাশক ও গর্ভনিরোধ ওষুধের সংকট দেখা দিয়েছে। লাম্পি স্কিন রোগের প্রতিষেধক ও সঠিক কোন ওষুধ না থাকায় দুশ্চিন্তায় পড়েছেন খামারিরা। এখন আবার বাজারে ওষুধের সংকট সৃষ্টি হওয়ায় তাদের দুশ্চিন্তা বেড়ে গেছে।

পৌরসভার মহেশ্চর এলাকার ইত্তেফাক ডেইরি খামারের মালিক নাসির উদ্দিন বলেন, লাম্পি স্কিন রোগে তার খামারে ৫৫টি গরু ছিল। লাম্পি স্কিন রোগে আক্রান্ত হয়ে পাঁচটি গরু মারা গেছে। রোগের কারণে তিনি ২২টি গরু কম দামে বিক্রি করে দিয়েছেন। লাম্পি স্কিন রোগে আক্রান্ত গরুর জন্য তিনি প্রায় তিন লাখ টাকার ওষুধ কিনেছেন।

গত সোমবার দুপুরে খামারে আরও একটি গরু হঠাৎ করে লাম্পি স্কিন রোগে আক্রান্ত হয়। গরুটিকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য প্রাথমিক চিকিৎসা করাতে তিনি অ্যান্টিবায়োটি ওষুধ কিনতে পৌর শহরে ছুটে যান। কিন্তু কোন দোকানে তিনি গরুর অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ পাননি।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, লাম্পি স্কিন রোগ সারতে একটু সময় লাগে। কিন্তু খামারিরা কোনভাবেই অপেক্ষা করতে চায় না। আর রোগের সঠিক ওষুধ আমাদের দেশেও নেই। তবে দোকানগুলোতে ওষুধ সংকটের বিষয়টি তিনি শেনার পর ওষুধ কোম্পানির লোকদের সরবরাহ বাড়াতে বলেছেন।