চট্টগ্রামে পশুরহাটে ভেটেরিনারি টিম

ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯ | ৬ ভাদ্র ১৪২৬

চট্টগ্রামে পশুরহাটে ভেটেরিনারি টিম

চট্টগ্রাম ব্যুরো ৫:২১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৮, ২০১৯

print
চট্টগ্রামে পশুরহাটে ভেটেরিনারি টিম

চট্টগ্রামের প্রতিটি কোরবানির পশুরহাটে পশুর প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার জন্য জেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয়ের তত্ত্বাবধানে ৭১টি ভেটেরিনারি টিম থাকবে। পশুর ধকলজনিত পানিস্বল্পতা, জ্বর, ব্যথা, পরিবহনকালীন ট্রমাটিক ইনজুরি, সাধারণ ক্ষুধামন্দা ইত্যাদির চিকিৎসা ও পরামর্শ দেবে এ টিম। প্রত্যেকটি টিমে থাকবে ৩-১১ সদস্যে। এছাড়া খুলশীতে জেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয়ে ১টি নিয়ন্ত্রণ কক্ষ চালু করা হয়েছে।

বুধবার চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে পশুর হাটে ভেটেরিনারি মেডিকেল টিমের কার্যক্রম বিষয়ক কর্মশালা ও সংবাদ সম্মেলনে জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ রেয়াজুল হক এসব তথ্য জানান। কর্মশালা প্রধান অতিথি ছিলেন বিভাগীয় প্র্রাণিসম্পদ কার্যালয়ের উপ পরিচালক ডা. মো. ফরহাদ হোসেন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন ক্যাবের সভাপতি এসএম নাজের হোসাইন, সিভাসুর পরিচালক (বহিরাঙ্গন কার্যক্রম) ডা. একেএম সাইফুদ্দিন, জেলা বিশেষ শাখার ওসি (ওয়াচ) মোহাম্মদ মজিবুর রহমান প্রমুখ।

জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ রেয়াজুল হক জানান, নগর ও জেলার ১৫ উপজেলায় ৬৩টি স্থায়ী এবং ১৪৬টি অস্থায়ী পশুর হাট বসছে। এর মধ্য দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম পশুর হাট সাগরিকা পশুর বাজারসসহ নগরে ৮টি পশুর হাট রয়েছে। সাধারণ মানুষ যাতে নিরাপদ পশু কিনতে পারে, অসাধু খামারিরা যাতে রোগা, অসুস্থ পশু বিক্রি করে ঠকাতে না পারে সে দিকে নজর রাখবে ভেটেরিনারি টিম।


বিজ্ঞানসম্মত ও স্বাস্থ্যবান্ধব উপায়ে পশু জবাই ও মাংস প্রক্রিয়াকরণ সর্ম্পকে চট্টগ্রাম জেলায় ২০৯ জনকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। কোরবানির পশু কেনার পর বাড়িতে পশুকে ভাত, চাল, গম, জাউ না খাওয়ানোর পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।