ফের উৎপাদন বন্ধ কেপিএমে

ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯ | ৯ ভাদ্র ১৪২৬

ফের উৎপাদন বন্ধ কেপিএমে

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি ৫:৫৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৬, ২০১৯

print
ফের উৎপাদন বন্ধ কেপিএমে

মিটারিং পার্টস নষ্ট হয়ে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকায় গত রোববার দুপুর থেকে রাঙামাটির কাপ্তাইয়ে অবস্থিত কর্ণফুলি পেপার মিল (কেপিএম)’র উৎপাদন বন্ধ রয়েছে। গ্যাস সররাহের কারণে উৎপাদন বন্ধ থাকায় কেপিএমকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, হাইকোটসহ বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিভাগে কাগজের স্বাভাবিক প্রয়োজন মেটাতে বেগ পেতে হবে বলে মনে করছেন কর্তৃপক্ষ।

অপরদিকে, গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকাই কেপিএম’র আবাসিক এলাকার বাসিন্ধারাও পড়েছেন বিপাকে।

কেপিএম’র উৎপাদন বন্ধ হওয়ায় অবসর সময় পার করছেন স্থায়ী-অস্থায়ী শ্রমিকরা। প্রতিদিন ১৫-২০লাখ টাকা আর্থিক ক্ষতি গুনতে হচ্ছে প্রতিষ্ঠানটিকে। বর্তমানে কেপিএম’র সাড়ে আটশ স্থায়ী-অস্থায়ী শ্রমিক, কর্মচারী, কর্মকর্তা কর্মরত আছেন। এতে প্রতিদিন ২০টন কাগজ উৎপাদন হয়।

কেপিএম সূত্রে জানা যায়, গত রোববার দুপুর ১টা ১৫মিনিটে হঠ্যাৎ গ্যাস সরবরাহ বন্ধ হয়ে কাগজ উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায় কেপিএম’র। পরবর্তীতে চট্রগ্রাম গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের একটি টিম কেপিএম গ্যাস সরবরাহ লাইন পরিদর্শন করে, সরবরাহ লাইনের একটি পার্টস নষ্ট হয়ে গেছে সেটি আমরা এনে লাগিয়ে দিব বলে তারা চলে যায়। তারা এখনো পার্টসটি খুঁজছেন বলে আমরা জানাতে পেরেছি।

কর্ণফুলি পেপার মিল কেপিএম’র এমডি ড. এমএমএ কাদের জানান, গত রোববার দুপুরে কেপিএম’র হঠ্যাৎ গ্যাস সরবরাহ লাইনের মিটারের একটি পার্টস নষ্ট হয়ে গ্যাস সরবরাহ বন্ধের কারণে উৎপাদন বন্ধ হয়ে গেছে। আমরা গ্যাস সরবাহ প্রতিষ্ঠান কেডিজিসিএল সঙ্গে যোগাযোগ করেছি।

তারা একটি পরিদর্শক টিমও পাঠিয়েছে। কিন্তু পার্টসটি তারা এখনো লাগিয়ে দিয়ে যাননি। আমরা বাইরের কাউকে এনে ঠিক করাবো কিনা তা জানতে চাইলেও সরবরাহ প্রতিষ্ঠানটি ছাড়া কেউ ঠিক করতে পারবে না বলেই পার্টসটি লাগানো অপেক্ষায় আছি আমরা।