টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গাসহ নিহত ২

ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯ | ৫ ভাদ্র ১৪২৬

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গাসহ নিহত ২

টেকনাফ প্রতিনিধি ১:২৬ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৫, ২০১৯

print
টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গাসহ নিহত ২

কক্সবাজারের টেকনাফে বিজিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গাসহ দুই মাদক পাচারকারী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন চার বিজিবি সদস্য। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ২টি দেশীয় বন্দুক, ৪ রাউন্ড তাজা কার্তুজ, ২০ হাজার পিস ইয়াবা ও ২টি কিরিচ জব্দ করা হয়।

সোমবার ভোররাতে উপজেলার হ্নীলা মৌলভীবাজার আড়াই নং স্লুইচ গেট পয়েন্ট এলাকায় বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার হোয়াইক্যং নয়াবাজারের জলিল আহমদের ছেলে দেলোয়ার হোসেন (৩০) এবং উখিয়ার কুতুপালং শরণার্থী ক্যাম্প-২ এর রোহিঙ্গা নাগরিক মৃত হায়দার শরীফের ছেলে নুরুল ইসলাম (২৭)।

বিজিবির টেকনাফ-২ ব্যাটালিয়নের উপ-অধিনায়ক মেজর শরিফুল ইসলাম জমাদ্দার জানান, ভোররাতে উপজেলার হ্নীলা মৌলভীবাজার আড়াই নং স্লুইচ গেট পয়েন্ট দিয়ে মাদকের চালান অনুপ্রবেশের সংবাদ পেয়ে বিজিবি টেকনাফ-২ ব্যাটালিয়নের একটি বিশেষ টহল দল ঘটনাস্থলে অবস্থান নেয়। কিছুক্ষণ পর কয়েক ব্যক্তি সশস্ত্র অবস্থায় কয়েকটি পোটলা নিয়ে এগিয়ে আসতে থাকলে বিজিবি তাদের চ্যালেঞ্জ করে। এ সময় অস্ত্রধারী দুর্বৃত্তরা বিজিবিকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। পরে বিজিবিও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি করলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ দুইজনকে উদ্ধার করে উপজেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে গুলিবিদ্ধ দুইজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার রেফার করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা মারা যায়।

এ ঘটনায় পৃথক আইনে মামলা করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে হবিগঞ্জের চুনারুঘাট, ময়মনসিংহ শহতলীর শম্ভুগঞ্জ ও ফুলবাড়ীয়া উপজেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামিসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। রোববার রাত পৌনে ১টার দিকে শহরতলীর শম্ভুগঞ্জের চরপুলিয়ামারী ও রাত আড়াইটায় ফুলবাড়ীয়া উপজেলার পার্টিরা কালাহদহ ঈদগাহ মাঠ এলাকা এবং রাত ৩টার দিকে চুনারুঘাটে ডেওয়াতলী কালিনগর এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনাগুলো ঘটে। এ সময় কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

নিহতরা হলেন- ময়মনসিংহ নগরীর পাটগুদাম এলাকার বাসিন্দা মো. জয়নাল আবেদীনের ছেলে জনি মিয়া (২৬), ফুলবাড়িয়া উপজেলার কৈয়ারচালা গ্রামের বাসিন্দা শফিকুল ইসলামের ছেলে জহিরুল ইসলাম (২০) ও মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া এলাকার বাসিন্দা সোলেমান মিয়া (৩০)।