মেট্রোরেলের বিকল্প নেই

ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯ | ৬ ভাদ্র ১৪২৬

মেট্রোরেলের বিকল্প নেই

ইকোনমিক জোন চালু হলে চট্টগ্রামে বাড়বে ১৫ লাখ মানুষ

চট্টগ্রাম ব্যুরো ২:৫৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৪, ২০১৯

print
মেট্রোরেলের বিকল্প নেই

চট্টগ্রাম মহানগরের মিরসরাইয়ে বঙ্গবন্ধু শিল্পনগর, আনোয়ারায় দেশি-বিদেশি ইকোনমিক জোন চালু হলে নগরে ১৫ লাখ মানুষ বাড়বে। এক্ষেত্রে এমআরটি বা মেট্রোরেলের বিকল্প নেই। সিডিএর নতুন মাস্টারপ্ল্যানে এমআরটির জায়গা চিহ্নিত করতে হবে। গতকাল (৩ আগস্ট) চট্টগ্রাম সিটি করপোরশনের (চসিক) সম্মেলন কক্ষে সিডিএর এক্সপ্রেসওয়ে ও চসিকের এমআরটি সম্পর্কিত সমন্বয় সভায় মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন এ আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, নগরবাসীর স্বার্থে টেকসই উন্নয়ন চাই আমরা। এমআরটি বা মেট্রোরেল অপরিহার্য। বিষয়টি এখনো প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। সিডিএ নতুন মাস্টারপ্ল্যানে এমআরটি করিডোর রাখবে। এ মুহূর্তে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণে বাধা নেই। মেয়র দুই সংস্থার প্রকৌশলীদের উদ্দেশে বলেন, নগরের যে কোনো প্রকল্প টেকসই করতে হবে। যাদের জন্য উন্নয়নকাজ তাদের সুফল নিশ্চিত করতে হবে। নগরের আয়তন সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে না বাড়ায় গণপরিবহনে সমস্যা দেখা দিচ্ছে। গণপরিবহনের চাপ নগরে ক্রমান্বয়ে বাড়বে।

মিরসরাইয়ে বঙ্গবন্ধু শিল্পনগর হচ্ছে, আনোয়ারায় ইকোনমিক জোন হচ্ছে। এগুলো পুরোদমে উৎপাদনে গেলে ১৫ লাখ মানুষ নগরে যুক্ত হবে। তাই গণপরিবহনকে অগ্রাধিকার দিতে হবে। চসিক এমআরটি বা মেট্রোরেল পরিকল্পনা করছে। সরকার এ ব্যাপারে অত্যন্ত আন্তরিক। এমআরটি রাখতেই হবে। বলেন মেয়র। সিডিএর প্রকল্প পরিচালক মাহফুজুর রহমান জানান, টাইগারপাস থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত চার লেনের এক্সপ্রেসওয়ে হচ্ছে।