টেকনাফে মানব পাচারের ৩ আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯ | ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

টেকনাফে মানব পাচারের ৩ আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

টেকনাফ প্রতিনিধি ৯:৫৬ পূর্বাহ্ণ, জুন ২৫, ২০১৯

print
টেকনাফে মানব পাচারের ৩ আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিন যুবক নিহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি, নিহত তিন যুবক মানবপাচার মামলার পলাতক আসামি। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে তিনটি দেশীয় তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র, ১৫ রাউন্ড গুলি ও ২০ রাউন্ড গুলির খোসা উদ্ধার করা করেছে পুলিশ। সোমবার রাত পৌনে ৩টার দিকে উপজেলার মহেশখালীয়াপাড়ায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- টেকনাফের সাবরাং নয়াপাড়ার আব্দুর শুক্কুরের ছেলে কোরবান আলী (৩০), পৌরসভার কেকে পাড়ার আলী হোসেনের ছেলে আবদুল কাদের (২৫) ও একই এলাকার সুলতান আহম্মদের ছেলে আবদুর রহমান (৩০)।

টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাস জানান, বন্দুকযুদ্ধে নিহত তিনজনই মানবপাচার মামলার পলাতক আসামি। দীর্ঘদিন ধরে তারা পালিয়ে বেড়াচ্ছিলেন। রাত পৌনে ৩টার দিকে তিন যুবক উপজেলার মহেশখালীয়া পাড়াঘাটে অবস্থান করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফ থানা পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আবদুল কাদের, কোরবান ও আবদুর রহমানসহ তাদের সহযোগীরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি করে। এক পর্যায়ে তারা পিছু হটে। পরে ঘটনাস্থলে ওই তিন মানবপাচারকারীকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ঘটনাস্থলে পাওয়া যায়।

পরে তাদের উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় টেকনাফ থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. সায়েফ কনেস্টেবল মং ও মো. শুক্কুর আহত হয়েছেন। তারা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন বলেও জানান তিনি।