পর্যটকমুখর বান্দরবান

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯ | ৬ আষাঢ় ১৪২৬

পর্যটকমুখর বান্দরবান

কৌশিক দাশ, বান্দরবান ৮:৩১ অপরাহ্ণ, জুন ০৯, ২০১৯

print
পর্যটকমুখর বান্দরবান

প্রাকৃতিক দৃশ্য আর বিচিত্রময় জীবন ধারার মাঝে পাহাড়ি জেলা বান্দরবান। প্রকৃতির নির্মল স্বাদ পেতে পর্যটকদের কাছে সবচেয়ে আকর্ষণীয় স্থান বান্দরবান। পাহাড়-পর্বত ছাড়াও এখানে রয়েছে অসংখ্য ঝিরি-ঝর্ণা, নজরকাড়া স্বর্ণমন্দির, নীলাচল, নীলগিরি, শৈলপ্রপাত, চিম্বুকসহ সরকারি-বেসরকারি অনেক পর্যটন স্পট।

সবকিছু মিলিয়ে ঈদের টানা ছুটি শেষে ও ভ্রমণপিপাসু পর্যটকের পদভারে এখন মুখর হয়ে উঠছে পাহাড়ি জেলা বান্দরবান। পুরো শহরজুড়েই পরিণত হয়েছে মিলনমেলায়। পর্যটকের বাড়তি চাপ সামলাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে হোটেল-মোটেল, গেস্ট হাউস্ট, রেস্ট হাউস মালিকসহ পর্যটন শিল্পে সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী, প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের।

বান্দরবানের নীলাচল পর্যটনকেন্দ্রে ভ্রমণে আসা পর্যটক মো. আলম জানান, পার্বত্য এলাকা অনেক সুন্দর, পাহাড়ি ঝর্ণা ও উঁচু-নিচু পাহাড় ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আমাদের মনকে নতুনভাবে জাগিয়ে তোলে। সত্যিই অসাধারণ বান্দরবানের প্রাকৃতিক দৃশ্য।

বান্দরবানের মেঘলায় বেড়াতে আসা পর্যটক শাহ আলম বলেন, বান্দরবানের সৌন্দর্য অতুলনীয়। বান্দরবানের বিনোদনকেন্দ্রগুলো বেড়াতে আমাদের অনেক মজার লাগে। আমরা পরিবার-পরিজন নিয়ে প্রায়ই বান্দরবান ভ্রমণে আসি এবং পাহাড়, নদী আর ঝর্ণার পাশে থেকে সময় কাটাই।

বান্দরবানের হোটেল মোটেল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, ঈদের ছুটিতে পর্যটকের উপস্থিতি লক্ষ করা গেছে। এ বছর ঈদে বান্দরবানে অনেক পর্যটক আসছে দেখলাম। আগামীতে আরও পর্যটক এ জেলায় আগমন করবে এবং জেলার বিভিন্ন পর্যটনকেন্দ্র ভ্রমণ করবে এবং জেলার সুনাম দেশ-বিদেশে ছড়িয়ে যাবে।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার জানান, পর্যটকরা যাতে বান্দরবান জেলায় নিরাপদে ভ্রমণ করতে পারেন সে লক্ষ্যে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এ ছাড়াও ট্যুরিস্ট পুলিশ রয়েছে। তারা সার্বক্ষণিক টহল দিচ্ছে।