দীর্ঘদিনের ভোগান্তির অবসান, সংস্কার হচ্ছে বান্দরবান পৌরসভার সড়ক

ঢাকা, সোমবার, ৩ অক্টোবর ২০২২ | ১৮ আশ্বিন ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

দীর্ঘদিনের ভোগান্তির অবসান, সংস্কার হচ্ছে বান্দরবান পৌরসভার সড়ক

বান্দরবান প্রতিনিধি
🕐 ১:২৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৯, ২০২২

দীর্ঘদিনের ভোগান্তির অবসান, সংস্কার হচ্ছে বান্দরবান পৌরসভার সড়ক

অবশেষে স্বস্তির নিশ্বাস ফেলছে বান্দরবান পৌরসভার বাসিন্দারা। দীর্ঘদিন ধরে পৌর এলাকার বান্দরবান বাজার এর চৌধুরী মার্কেট থেকে শুরু করে ক্যাচিংঘাটা পর্যন্ত সড়ক এর ছিল বেহাল অবস্থা। খানাখন্দে আর ধুলোবালিতে একাকার ছিল পৌর এলাকার বিভিন্ন সড়কের। সড়কের বেশিরভাগই ছিল ভাঙ্গা আর চলাচলের অনুপযোগী,তবে এবার পৌর কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টির কারণে দীর্ঘদিনের ভোগান্তী লাগব হবে বলে প্রত্যাশা করছে পৌরবাসির।

বান্দরবান পৌরসভার সুত্রে জানা যায়,৮৭ লক্ষ টাকা ব্যয়ে শুরু হয়েছে বান্দরবান পৌরসভার সড়কের মেরামতের কাজ। ইতিমধ্যে পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের চৌধুরী মার্কেট থেকে সড়ক মেরামতের কাজ শুরু হয়ে ফায়ার সার্ভিস এলাকা পর্যন্ত সম্পন্ন= হয়েছে,পর্যায়ক্রমে কাজ চলমান থাকবে। বান্দরবান পৌরসভার স্টেডিয়াম এলাকার বাসিন্দা মো.তারেকুর রহমান বলেন, বান্দরবান পৌরসভার কয়েকটি সড়কে চলাচল করা খুবই কষ্টকর ছিল,তবে দেরীতে হলে ও সড়কগুলো
মেরামত করায় আমরা কিছুটা স্বস্তি পাচ্ছি। তিনি আরো বলেন, বান্দরবান জেলা শহরের গুরুত্বপূর্ণ সরকারী স্থাপনাসহ রাজারমাঠ এলাকা, টাউন হল এলাকা, জেলা কারাগার,কলেজ, হাসপাতাল, স্টেডিয়াম, উন্নয়ন বোর্ড, বনবিভাগ, গণপূর্ত বিভাগসহ নতুন ব্রিজ সড়ক দিয়ে আমরা চলাচল প্রায় ছেড়েই দিয়েছিলাম,তবে
দীর্ঘদিন পরে এই জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলো মেরামতের কাজ শুরু করায় আমরা আনন্দিত। বান্দরবান পৌরসভার কালাঘাটা এলাকার বাসিন্দা মো.রশীদ বলেন, প্রতিদিন কালাঘাটা থেকে সদরে প্রায় কয়েক হাজার মানুষ চলাচল করে,তবে সড়ক ভাঙ্গা থাকায় কষ্টের সীমা ছিলনা। পৌর শহরের গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি দীর্ঘদিন উন্নয়ন বঞ্চিত থাকায় এলাকার জনগন প্রচুর কষ্টে জীবনযাপন করেছে। তিনি আরো বলেন, আমরা চাই ১ম শ্রেনীর পৌরসভা ও পর্যটন জেলা হিসেবে বান্দরবানের সকল সড়কগুলো যেন সুন্দর থাকে, সবাই যেন নিবিঘ্নে চলাচল করতে পারে। বর্তমানে সড়কগুলো মেরামতের কাজ শুরু হওয়ায় আমরা আগামীতে অনেক সহজেই যাতায়ত করতে পারবে।

স্থানীয় রিক্সা চালক মো:রমিজ মিয়া বলেন, এতদিন চৌধুরী মার্কেট থেকে ক্যাচিংঘাটা পর্যন্ত কোন যাত্রী নিয়ে আমি যেতাম না, কেননা ওই সড়কের বেশিরভাগ অংশ ভাঙ্গা ছিল। রিক্সা চালক মো:রমিজ মিয়া আরো বলেন, কোন রোগীকে রিক্সা দিয়ে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে তার অবস্থা খুব খারাপ হয়ে যেত ,নামার পরবিভিন্ন মন্দ কথা বলতো ,তবে এবার সড়কের মেরামতের কাজ শুরু হওয়ায় যাত্রী আগের চেয়ে বাড়বে আর আমাদের ভোগান্তী অনেকটাই কমবে।
এদিকে বান্দরবান পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মো.হুমায়ন কবির বলেন, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের কাছ থেকে বরাদ্ধ পাওয়ায় পর আমরা দরপত্র আহবান করে ঠিকাদারের মাধ্যমে বান্দরবানের সড়ক সংস্কারের কাজ শুরু করেছি। আর প্রথম পর্যায়ে ৮৭লক্ষ টাকা ব্যয়ে পৌর এলাকার চৌধুরী মার্কেট থেকে বান্দরবান সরকারি কলেজ পর্যন্ত মেরামত কাজ শেষ করবো। তিনি আরো বলেন, ২য় পর্যায়ে আবারও দরপত্র আহবান করে কলেজ এলাকা থেকে ক্যাচিংঘাটা পর্যন্ত সড়কের মেরামত কাজ সম্পন্ন করবো আর এতে জনগণের স্বাভাবিক চলাচল করা অনেকটাই সহজ হবে। বান্দরবান পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী বলেন,দীর্ঘদিন বান্দরবান পৌরসভার জনগণ সড়কের ভোগান্তীতে কষ্ট পোহাঁচ্ছিল,পর্যাপ্ত বরাদ্ধের অভাবে সড়কের সংস্কার কাজ করা যায়নি তবে এবার সাধারণ জনগণের ভোগান্তী লাঘবের লক্ষ্যে পৌর এলাকার সড়কগুলো সংস্কার ও উন্নয়ন কাজ শুরু হয়েছে এবং পর্যায়ক্রমে পৌরসভার সকল সড়কের
সংস্কার ও উন্নয়ন কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

 
Electronic Paper