চাকরি বাঁচাতে মেয়রের একান্ত সচিবকে ব্যবহার

ঢাকা, শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭

চাকরি বাঁচাতে মেয়রের একান্ত সচিবকে ব্যবহার

আড়াল হচ্ছে অপকর্ম

তোফাজ্জল হোসেন ১০:২৪ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৫, ২০২১

print
চাকরি বাঁচাতে মেয়রের একান্ত সচিবকে ব্যবহার

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রকৌশল বিভাগের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী (টিইডি), (পুর/যান্ত্রিক) (বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ) কাজী মো. বোরহান উদ্দিনের বিরুদ্ধে নানা দুর্নীতি অনিয়মের চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেছে। বিশেষ করে এই অসাধু কর্মকর্তা নিজের চাকরি বাঁচানো ও অতীতের অপকর্ম আড়াল করতে বর্তমান মেয়র ফজলে নূর তাপসের একান্ত সচিবকে হাতে রেখে নানা ফন্দি আঁটছেন।

এই কর্মকর্তা ২০১২ সালে নির্বাহী প্রকৌশলী থাকাকালে জাল টেন্ডারের মাধ্যমে ১৩ কোটি টাকার কাজ না করেই ভুয়া টেন্ডারের মাধ্যমে তৎকালীন অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী আসাদুজ্জামানের সঙ্গে যোগসাজশে আত্মসাৎ করেন। ২০১২ সালের ২৩ ডিসেম্বরের একটি জাতীয় দৈনিকের ভুয়া টেন্ডারের ফাইল ক্ষতিয়ে দেখলেই থলের বিড়াল বেরিয়ে আসবে। ওই নোটিস ভোরের কাগজের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। বাস্তবে ভোরের কাগজে কোনো টেন্ডার নোটিস দেওয়া হয়নি। নোটিসটিও ভুয়া। এ বিষয়ে তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী কাজী বোরহান দৈনিক খোলা কাগজকে বলেন, অতীতের কাজের হিসাব এখন করে লাভ নেই। যে টেন্ডার ছিল, তা ওই সময় শেষ হয়েছে। নতুন কাজের বিষয়ে অনুসন্ধান করতে পরামর্শ দেন তিনি।

’৭১ সালের যুদ্ধাপরাধের বিচার যদি ৪০ বছর পরে হয়, তবে আপনার অপকর্মের বিচারে দোষ কোথায়- এ প্রসঙ্গে তিনি অতীতের হিসাব ছেড়ে দিতে পরামর্শ দিয়ে বলেন, সাংবাদিক ভাই, আপনি অনেক পুরনো লোক। এসব বিষয় নিয়ে ঘাটাঘাটি থেকে বিরত থাকলে ভালো হয়। এ ছাড়াও তার সঙ্গে রফাদফা করানোর প্রস্তাবও করা হয়েছে। তিনি বর্তমানে মেয়রের একান্ত সচিবকে আয়ত্তে রেখে অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছেন।

এ বিষয়ে ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (অতিঃ সচিব) এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য করতে অপারগতা প্রকাশ করেন। তবে বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখা হবে বলে জানান।