রাজধানীতে গলায় ফাঁস দিয়ে মেডিক্যাল ছাত্রীর আত্মহত্যা

ঢাকা, শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০ | ২৭ চৈত্র ১৪২৬

রাজধানীতে গলায় ফাঁস দিয়ে মেডিক্যাল ছাত্রীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক ৮:১৬ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০

print
রাজধানীতে গলায় ফাঁস দিয়ে  মেডিক্যাল ছাত্রীর আত্মহত্যা

রাজধানীতে গলায় ফাঁস দিয়ে উম্মে ফাহিমা হোসেন দিবা (২৬) নামে এক মেডিক্যাল ছাত্রী আত্মহত্যা করেছেন। শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকালে রমনা থানাধীন বড় মগবাজার এলাকা থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

দিবা গোপালগঞ্জ কাশিয়ানী উপজেলার রমাদিয়া গ্রামের গাজী দেলোয়ার হোসেনের মেয়ে। তিনি স্বামী শরীফ শাহরিয়ার শুভ ও এক মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে বড় মগবাজার এলাকায় একটি বাসায় ভাড়া থাকতেন।

রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম জানান, দিবা স্বামী সন্তান নিয়ে বড় মগবাজারের ইস্টার্ন টিউলিপের ৩০১ নম্বর ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকতেন।

পরিবারের বরাত দিয়ে তিনি জানান, দিবা একটি বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজের শেষ বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। পরীক্ষায় ফেল করায় তিনি মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েন। শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) ভোরে বাথরুমের ঝর্ণার সঙ্গে গলায় ওড়না পেচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। পরে খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

দিবার পরিবারের দাবি, পরীক্ষায় ফেল করায় দিবা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তবে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে বলেও ওসি মনিরুল।