নতুন চেহারা পাচ্ছে পুরান ঢাকা

ঢাকা, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০ | ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭

নতুন চেহারা পাচ্ছে পুরান ঢাকা

তোফাজ্জল হোসেন ১১:১৮ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৯

print
নতুন চেহারা পাচ্ছে পুরান ঢাকা

বিশ্বমানের করে গড়ে তোলা হচ্ছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ১৯টি পার্ক, ১২টি খেলার মাঠ, রাজধানীর সায়েদাবাদ সংলগ্ন নবসজ্জিত আউটফল স্টাফ কোয়ার্টার পার্ক এবং নবনির্মিত পরিচ্ছন্নকর্মী নিবাস। ১২ কাঠা জমির ওপর নির্মিত তিন কোটি টাকা ব্যয়ে নবসজ্জিত আউটফল স্টাফ কোয়ার্টারে শিশুদের খেলার মাঠ, ওয়াকওয়ে, ছাদবাগান, পাঠাগার, শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত হলরুম, বৈদ্যুতিক বাতির ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। পুরো কাজ শেষ হলে এটি ঢাকা দক্ষিণের এক নয়নাভিরাম বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ডিএসসিসির অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী আসাদুজ্জামান জানিয়েছেন, এলইডি লাইটের স্নিগ্ধ আলোয় ঢাকা আজ আলোকিত। ফলে কমে এসেছে ছিনতাই, সন্ত্রাসীসহ নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, অপর একটি প্রকল্পের ১৭ কাঠা জমির ওপর ১১ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত তেলেগু পরিচ্ছন্নকর্মী নিবাসে প্রতিটি ফ্লাটে বেডরুমে, ডাইনিং কাম ড্রয়িং রুম, রান্না ঘর, টয়লেট, বারান্দা ইত্যাদি সুবিধাসংবলিত ৯০টি ফ্লাট, প্রতিটি ফ্লাটের জন্য পৃথক বৈদ্যুতিক মিটার, সোলার সিস্টেম, পয়োনিষ্কাশন ব্যবস্থা, বৈদ্যুতিক সাবস্টেশন, সীমানা প্রাচীর, ওয়াকওয়ে, প্রবেশ ও বহির্গমন গেটের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। করপোরেশন কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সন্তানরা যেন খেলাধুলা সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের মধ্য দিয়ে সুন্দর পরিবেশে বেড়ে উঠতে পারে সে লক্ষ্যে পার্ক এবং জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্যে পরিচ্ছন্নকর্মী নিবাসের কার্যক্রম চলছে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটির প্রকৌশল বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, খেলার মাঠটি ইতোমধ্যে বিভিন্ন এলাকার মানুষের বিনোদনের জন্য জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। সংস্থার কয়েকটি প্রকল্পের মাধ্যমে নির্মাণকাজ শেষে ইতোমধ্যে কয়েকটি উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছে। এসব উন্নয়নকাজ শেষে উন্মুক্ত করে দেওয়া হলে পুরো দক্ষিণ ঢাকা এক অনিন্দ্যসুন্দর রূপ লাভ করবে।

এসব মাঠের মধ্যে কয়েকটি পার্ক ও মাঠ ইতোমধ্যে ওয়ার্ড কাউন্সিলর, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ ইমদাদুল হক ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তি উপস্থিত থেকে কয়েকটি খেলার মাঠ উন্মুক্ত করে দেন।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. সাঈদ খোকন বলেন, শিশু-কিশোর এবং বয়স্কদের সুবিধার কথা বিবেচনায় নিয়ে সিটি করপোরেশনের মেগা প্রকল্পের মাধ্যমে বেশ কিছু প্রকল্প ইতোমধ্যে উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। বিশেষ করে নগরীর নবসজ্জিত আউটফল স্টাফ কোয়ার্টার বিশ্বমানের করে গড়ে তোলা হচ্ছে। পুরো কাজ শেষ হলে বিনোদনের জায়গা আরও প্রসারিত হবে এবং পুরান ঢাকার চেহারা অনেকটাই বদলে যাবে।