সুপেয় পানি নিশ্চিতে কাজ করছে ঢাকায়

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৫ আশ্বিন ১৪২৬

এসএ ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের উদ্যোগ

সুপেয় পানি নিশ্চিতে কাজ করছে ঢাকায়

শাহাদৎ স্বপন ১০:৪২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৭, ২০১৯

print
সুপেয় পানি নিশ্চিতে কাজ করছে ঢাকায়

রাজধানী ঢাকায় সুপেয় পানির অভাব দীর্ঘদিনের। ঢাকা ওয়াসা প্রতিষ্ঠাকালীন থেকে অর্থাৎ প্রায় ৫০ বছর ধরে নির্মিত এম এস ও পিভিসির পাইপে সরবরাহ করা হতো ওয়াসার পানি। বহু বছরের পুরনো সেই পাইপ নষ্ট হয়ে যাওয়ায় অনেক ক্ষেত্রে স্যুয়ারেজের লাইনের সঙ্গে খাবার পানির লাইন একাকার হয়ে পানি দূষিত হওয়ার ঘটনা ছিল অহরহ।

এমন সময় বর্তমান সরকারের একান্ত প্রচেষ্টায় ঢাকা ওয়াসা নিয়েছে রাজধানীবাসীর জন্য সুপেয় পানি নিশ্চিতের উদ্যোগ। সব প্রক্রিয়া শেষ করে ইতোমধ্যে তারা চালু করেছে ঢাকা ওয়াটার সাপ্লাই নেটওয়ার্ক ইমপ্রুভমেন্ট প্রজেক্ট বাস্তবায়নের কাজ। এ প্রকল্পের উদ্দেশ্য পর্যায়ক্রমে পুরো ঢাকা শহরকে উন্নত প্রযুক্তিতে তৈরি এইচডিপিই পাইপের মাধ্যমে সরাসরি পাম্প থেকে পানি গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দেওয়া।

ঢাকা ওয়াটার সাপ্লাই নেটওয়ার্ক ইমপ্রুভমেন্ট প্রকল্পের আওতায় পুরান ঢাকার প্রায় সাড়ে ১১ স্কয়ার কিলোমিটারে মোট ২৫৩ কিলোমিটার পাইপলাইন পুনঃস্থাপনের কাজ শুরু করেছে ঢাকা ওয়াসা। এ কাজে কারিগরি অংশ সম্পন্ন করছে নীলসাগর গ্রুপের এস এ ইঞ্জিনিয়ারিং।

গতকাল শনিবার সকালে পিলখানার বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের ৩নং গেটে এ কাজের উদ্বোধন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন-প্রকল্পটির ডেপুটি ডাইরেক্টর মোস্তাফিজুর রহমান, প্রকল্পটির স্থানীয় প্রতিনিধি প্রতিষ্ঠান এস এ ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের প্রজেক্ট ইনচার্জ প্রকৌশলী সাবের আহমেদ, ঢাকা ওয়াসার নির্বাহী প্রকৌশলী জয়নাল আবেদিন, নীলসাগর মিডিয়ার পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) প্রকৌশলী সাইয়েদ মোহাম্মদ আবিদুহু প্রমুখ।

প্রকৌশলী সাবের জানান, এর আগে চায়না ফার্স্ট মেটালার্জিক্যাল গ্রুপের সঙ্গে যৌথভাবে এস এ ইঞ্জিনিয়ারিং রাজধানীর আফতাবনগর থেকে শুরু হয়ে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার রাস্তায় দুই ধারে ২৭৪ কিলোমিটার পাইপলাইনের কাজ বাস্তবায়ন করেছে। এস এ ইঞ্জিনিয়ারিং দক্ষ জনবল এবং সর্বশেষ প্রযুক্তিনির্ভর যন্ত্রপাতি দিয়ে সুপেয় পানির উন্নয়ন কাজ করায় সন্তোষ প্রকাশ করেছে ঢাকা ওয়াসা এবং চায়নাভিত্তিক ফার্স্ট মেটালার্জিক্যাল গ্রুপ কর্তৃপক্ষ।

তিনি আরও জানান, প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে রাজধানীর পুরান ঢাকার প্রায় ১০ লাখেরও বেশি মানুষ সুপেয় পানি পাবে। এমনকি সুপেয় পানি নিশ্চিতের ফলে গ্রাহক সেবার মান উন্নত হবে, বাড়বে গ্রাহকের পরিমাণও।

তিনি জানান, দীর্ঘ ৫০ বছরেরও বেশি সময়ের পুরনো লাইনে পানি সরবরাহের কারণে পানির মান নষ্ট হয়ে গেছে। বর্তমানে যে প্রক্রিয়ায় পানির লাইন পুনঃস্থাপনের কাজ চলছে, তাতে আগামী ৫০ বছর পানি নিয়ে গ্রাহকদের মধ্যে অসন্তোষ তৈরি হবে না।

জানা গেছে, বর্তমানে চলমান পুরান ঢাকার পানির ২৫৩ কিলোমিটার পাইপলাইন পুনঃস্থাপনের কাজ শেষ হলে উপকৃত হবে প্রায় ১০ লাখেরও বেশি মানুষ। প্রকল্পটিতে বাংলাদেশ সরকারের পাশাপাশি অর্থায়ন করছে এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক-এডিপি।

বোরিং পদ্ধতিতে পুরান ঢাকার ২৫৩ কিলোমিটার পানির পাইপলাইনের পুনঃস্থাপনের কাজ শেষ করতে আনুমানিক ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে ২২০ কোটি টাকা।