ক্ষতিপূরণের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান, মামলা

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ১ আশ্বিন ১৪২৬

বাস চাপায় কৃষ্ণার পা বিচ্ছিন্ন

ক্ষতিপূরণের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান, মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক ১২:৩৬ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৯, ২০১৯

print
ক্ষতিপূরণের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান, মামলা

রাজধানীর বাংলামোটরে ফুটপাতে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় শাহবাগমুখী ট্রাস্ট পরিবহনের বাসের চাপায় পা হারান বিআইডব্লিউটিসির সহকারী ব্যবস্থাপক কৃষ্ণা রায়। এ ঘটনায় বিআইডব্লিউটিসির পক্ষ থেকে একটি মামলা করা হয়েছে। ট্রাস্ট ট্রান্সপোর্ট সার্ভিসেস কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে দুর্ঘটনায় পা হারানো কৃষ্ণা রায় চৌধুরীকে দুই লাখ টাকা ক্ষতিপূরণের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছে তার প্রতিষ্ঠান বিআইডব্লিউটিসি।

বিআইডব্লিউটিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম মিশা গতকাল বলেন, ট্রাস্ট পরিবহনের মালিক সমিতির কয়েকজন প্রতিনিধি দুপুরে বাংলামোটরে বিআইডব্লিউটিসির কার্যালয়ে এসেছিলেন। তারা বিআইডব্লিউটিসি চেয়ারম্যান প্রণয় কান্তি বিশ্বাসের সঙ্গে কথা বলেন। সেখানে কৃষ্ণার স্বামী রাধে দেবও ছিলেন। সে সময় মালিক সমিতির প্রতিনিধিরা ক্ষতিপূরণ বাবদ দুই লাখ টাকা দিতে চেয়েছিল।

তাদের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে জানিয়ে নজরুল বলেন, দুর্ঘটনায় মামলা করার জন্য বিআইডব্লিউটিসির সচিব (উপসচিব) বিপুল চন্দ্র বিশ্বাস থানায় গেছেন।

মঙ্গলবার দুপুরে বাংলামোটর ওভারব্রিজের নিচে ফুটপাতে দাঁড়িয়ে থাকা কৃষ্ণা রায়কে চাপা দেয় ট্রাস্ট পরিবহনের একটি বাস। কৃষ্ণাকে প্রথমে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়, সেখান থেকে পাঠানো হয় পঙ্গু হাসপাতালে। সেখানে তার বাঁ পায়ের হাঁটুর নিচ থেকে কেটে ফেলতে হয়। মাথায় দুটি সেলাই দেওয়া হয়।

বিআইডব্লিউটিসির প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা খন্দকার মাসুম হাসান জানিয়েছেন, কৃষ্ণার শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে। বুধবার বেলা ১১টার দিকে ক্ষত ড্রেসিং করার জন্য তাকে অপারেশন থিয়েটারে নেওয়া হয়। বর্তমানে তিনি বিছানায় রয়েছেন, কিন্তু ব্যথায় কাতরাচ্ছেন।

বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান সকালে পঙ্গু হাসপাতালে গিয়ে তাকে দেখে এসেছেন।