চিকিৎসক মারধরে থানায় জিডি, বিচার দাবিতে মানববন্ধন

ঢাকা, রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ১০ আশ্বিন ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

চিকিৎসক মারধরে থানায় জিডি, বিচার দাবিতে মানববন্ধন

আরিফ জাওয়াদ, ঢাবি
🕐 ৪:৩৮ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০২২

চিকিৎসক মারধরে থানায় জিডি, বিচার দাবিতে মানববন্ধন

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসক ডা. এ কে এম সাজ্জাদ হোসেনের হামলার প্রতিবাদ ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে ইন্টার্ন চিকিৎসক পরিষদ (ইচিপ)। এদিকে হামলার ঘটনায় শাহবাগ থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন ওই ভুক্তভোগী চিকিৎসক।

বুধবার (১০ আগস্ট) সকাল ১১টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মানববন্ধন কর্মসূচি শুরু করেন ইচিপ সদস্যবৃন্দ। দুপুর দেড়টায় কর্মসূচি শেষ করেন। এতে শতাধিক ইন্টার্ন চিকিৎসক অংশ নেন।

মানববন্ধনে ইন্টার্ন চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি ডা. মহিউদ্দিন জিলানী বলেন, শুধু ডা. সাজ্জাদ নয় অনেকেরই সঙ্গেই এরকম ঘটনা ঘটে। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করেছি। তিনি এই ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নিবেন বলে আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন। আমরা চাই আজকের মধ্যেই দোষীদের শনাক্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হোক। তা না হলে আগামীকাল থেকে আমরা কর্মবিরতি পালন করবো।

তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতি আমাদের কোন আক্ষেপ নেই। তারা আমাদের ভাই। কিছু ছাত্রের জন্য পুরো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বদনাম। আমরা এইসব বিপথগামী শিক্ষার্থীর বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করছি।

ইপিচ সদস্য জাকিউল ইসলাম ফুয়াদ বলেন, আমরা এরইমধ্যে মিটিং করেছি, আমাদের ডিরেক্টর, প্রিন্সিপালসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির সঙ্গে আলোচনা করেছি। আমরা বলেছি, আপনারা সিসিটিভি ফুটেজ দেখেন, দোষীদের চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় আনেন। তা না হলে ইন্টার্ন চিকিৎসক পরিষদ তাদের পরবর্তী পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হবে।

এর আগে সকাল ১০টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামানের সাথে আলোচনা করেন তারা। এসময় উপাচার্য হামলাকারীদের চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় আনার আশ্বাস দেন বলে জানিয়েছেন ইন্টার্ন চিকিৎসক পরিষদ (ইচিপ)।

এদিকে শাহবাগ থানা পুলিশ বলছে, ঘটনার সঙ্গে যেই জড়িত থাকুক না কেন, কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। সুনির্দিষ্ট তথ্য প্রমাণ ও সংশ্লিষ্ট এলাকার ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ ও বিশ্লেষণ করে জড়িতদের শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

উল্লেখ্য, গত ৮ আগস্ট রাতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এলাকায় হামলার শিকার হন ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসক সাজ্জাদ হোসেন। ভুক্তভোগীর অভিযোগ ওইদিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লোগো সম্বলিত টি-শার্ট পরিহিত ৮-১০ জন যুবক পরিচয় জানতে গিয়ে বেদম প্রহার করে।

 
Electronic Paper