মাঝ নদীতে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

ঢাকা, সোমবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২২ | ১১ মাঘ ১৪২৮

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা

মাঝ নদীতে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

ভোলা প্রতিনিধি
🕐 ৯:১৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৬, ২০২১

মাঝ নদীতে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

ভোলার দৌলতখান উপজেলার মদনপুর ইউনিয়ন নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় খোরশেদ আলম টিটু নামের এক যুবলীগ নেতা নিহত হয়েছেন।

আজ শুক্রবার বিকালে ভোলা সদর উপজেলা এবং দৌলতখান উপজেলার মধ্যবর্তী মেঘনা নদীতে এই ঘটনা ঘটেছে।

নিহত টিটু ভোলা সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়ন যুগলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। তিনি ওই ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের তছির আহম্মেদের ছেলে।

মদনপুর ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের নবাগত ইউপি সদস্য হেলাল মাস্টার বলেন, গত ১১ নভেম্বর ভোলার দৌলতখান উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে বিজয়ী চেয়ারম্যান একেএম নাছির উদ্দিন নান্নু-সহ আমরা কয়েকজন ইউপি সদস্য শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে ভোলা সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের নাছির মাঝি ঘাট থেকে ট্রলারে করে মদনপুর ইউনিয়নের উদ্দেশে রওনা হই।

পরে মদনপুরে পৌঁছে নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যরা স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে দেখা করি এবং খোঁজখবর নেই। এরপর বিকেল সাড়ে ৪টার পর ভোলা সদর উপজেলার নাছির মাঝির উদ্দেশে ট্রলারে করে রওনা হই। ভোলা সদর উপজেলার ধনিয়া ও দৌলতখান উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের মধ্যবর্তী মেঘনা নদীতে পৌঁছলে একটি দ্রুতগামী স্পিডবোটে করে একদল দুর্বৃত্ত তাদের ট্রলারের উদ্দেশ্যে গুলি চালায়। এ সময় মো. টিটুর মাথায় গুলি লাগে। পরে আমাদের ট্রলারটি দ্রুত তীরে ভিড়ে টিটুকে নিয়ে ভোলা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথেই মারা যান।

ভোলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম জানান, গুলিবিদ্ধ হয়ে একজন নিহত হয়েছেন। যে স্পিডবোট ব্যবহার করে দুর্বৃত্তরা গুলি চালিয়েছে সেটি জব্দ করা হয়েছে। তদন্ত চলছে, অচিরেই হামলাকারীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

 
Electronic Paper