যুদ্ধ বিমান ভেঙে ফেলায় পবিপ্রবির শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ

ঢাকা, সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১ | ৬ বৈশাখ ১৪২৮

যুদ্ধ বিমান ভেঙে ফেলায় পবিপ্রবির শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ

দুমকি (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি ৬:৩৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ০৭, ২০২১

print
যুদ্ধ বিমান ভেঙে ফেলায় পবিপ্রবির শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ

পটুয়াখালীতে দুমকির (বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়কের) লেবুখালী পাগলার মোড় নামক স্থানে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কয়ারে স্তম্ভে ব্যবহৃত যুদ্ধবিমান ভেঙে ফেলায় নিন্দা এবং ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও স্থানীয়রা। স্থাপনাটি ২০০৩-০৪ সালের দিকে বিএনপি সরকারের সময় নির্মাণ করা হয়েছিল।

গত শনিবার পায়রা সেতুর অ্যাপ্রোচ সড়ক নির্মাণের জন্য স্মারক যুদ্ধবিমান সংবলিত বিশ্ববিদ্যালয় নির্দেশক স্তম্ভটি ভেঙে ফেলা হয়। পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও চলমান লেবুখালী (পায়রা) সেতু প্রকল্পের কর্মকর্তাদের অব্যবস্থাপনায় এমনটি হয়েছে বলে অভিযোগ অনেকের।

লেবুখালী সেতুর প্রকল্প পরিচালক মো. আব্দুল হালিম জানান, সেতু নির্মাণের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান লং জিয়ন রোড অ্যান্ড ব্রিজ কনস্ট্রাকশন কোম্পানি বিশ্ববিদ্যালয় নির্দেশক স্তম্ভটি ভেঙেছে।

এদিকে এ ঘটনায় পরস্পরকে দোষারোপ করছে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও লেবুখালী সেতু নির্মাণকারী কর্তৃপক্ষ।

লেবুখালী সেতুর প্রকল্প পরিচালক মো. আব্দুল হালিম বলেন, স্থাপনাটি সরিয়ে নিতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে চিঠি দেওয়া হলেও তারা কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। পরে ঠিকাদার স্থাপনাটি ভেঙে ফেলেছে।

পবিপ্রবির দায়িত্বপ্রাপ্ত উপাচার্য ও রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত জানান, স্থাপনাটি অপসারণের ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব সক্ষমতা না থাকায় বিমানবাহিনীর সঙ্গে বারবার যোগাযোগ করা হলেও সেখান থেকে কোনো উত্তর পাওয়া যায়নি।