ভোগান্তিতে বিচার প্রার্থীরা

ঢাকা, বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

আমতলীতে নেই দেওয়ানি আদালত

ভোগান্তিতে বিচার প্রার্থীরা

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি ১২:১৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৯

print
ভোগান্তিতে বিচার প্রার্থীরা

বরগুনার আমতলীতে দেওয়ানি আদালত না থাকায় ২৮ বছর ধরে আমতলী-তালতলী উপজেলার কয়েক হাজার মামলা-মোকোদ্দমায় বিচার প্রার্থীরা চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। চার কিলোমিটার পায়রা নদী পাড়ি দিয়ে মামলা মোকোদ্দমার জন্য যেতে হয় বরগুনা সদরে অবস্থিত সহকারী জজ আদালতে।

২০১২ বরগুনা জেলা জজ আমতলীতে দেওয়ানি আদালত পুনঃস্থাপনের পক্ষে প্রতিবেদন দিলেও সাত বছরেও তা আলোর মুখ দেখেনি। এতে স্থবির হয়ে পরে আদালত পুনঃস্থাপনের কার্যক্রম।

তালতলী উপজেলা গাবতলী গ্রামের মো. আবদুল মাজেদ মাস্টার বলেন, গত আট বছর ধরে বরগুনা সহকারী জজ আদালতে (আমতলী) একটি মামলা চলছে। ঝড় বন্যা উপেক্ষা করে চার কিলোমিটার পায়রা নদী পাড়ি দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বরগুনা আদালতে যেতে হয়। এটা যে কতটা কষ্টের তা বোঝাতে পারব না। আমতলী-তালতলী মানুষের কষ্টের কথা বিবেচনা করে আইন মন্ত্রণালয়কে দ্রুত আমতলীতে দেওয়ানি আদালত স্থাপনের দাবি জানান তিনি।

আমতলী সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের আইনজীবি মিজানুর রহমান সিকদার বলেন, ১৯৯১ সালে আমতলী থেকে দেওয়ানি আদালত প্রত্যাহার করে বরগুনা জেলা সদরের সঙ্গে সংযুক্ত করে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছে দুই উপজেলার কয়েক হাজার মানুষ।