শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ১ আশ্বিন ১৪২৬

কলাপাড়ায় শিক্ষকদের ওপর হামলা

শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি ১০:১৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৮, ২০১৯

print
শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় দুই স্কুল শিক্ষকের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে ক্লাস বর্জন করে পৃথক পৃথক মানববন্ধন করেছে দুই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বুধবার (২৮ আগস্ট) দুপুর ১২টায় উপজেলার টিয়াখালী ইউনিয়নের ইটবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও বাদুরতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের সড়কে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনে ওই দুই স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা প্রকাশ্য দিবালোকে স্কুলের সীমানায় প্রবেশ করে শিক্ষার্থীদের সামনে শিক্ষকদের ওপর সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে দোষীদের শাস্তির দাবি জানায়। বাদুরতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বাচ্চু হাওলাদার জানান, বিদ্যালয়ে পাঠদানের সময় স্থানীয় দুলাল হাওলাদার তাকে স্কুল মাঠে ডেকে নিয়ে গালাগাল করেন। গালাগালের কারণ জানতে চাইলে কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই দুলাল হাওলাদার ও তার সঙ্গীরা তার ওপর অতর্কিত হামলা চালায়।

ইটবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পলাশ মাহমুদ জানান, পাশর্^বর্তী স্কুলের শিক্ষকের ওপর হামলার খবর শুনে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করলে উত্তেজিত হামলাকারীরা তার ওপরও হামলা চালায়। এতে শিক্ষক পলাশ মাহমুদ গুরুতর আহত হয়ে বর্তমানে বরিশালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

অভিযুক্ত দুলাল হাওলাদার জানান, এ ঘটনা সম্পূর্ণ মিথ্যা। তবে পারিবারিক জমিজমা সক্রান্ত বিষয় নিয়ে স্কুল আঙ্গিনার বাইরে একটু ঝামেলা হয়েছে। এটা কোনো রাজনৈতিক ঘটনা নয় পারিবারিক ঘটনা।

উল্লেখ্য, গত ২৬ আগস্ট সোমবার ক্লাস চলাকালীন বাদুরতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বাচ্চু হাওলাদারের ওপর হামলা হয়। এ সময় পাশর্^বর্তী ইটবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পলাশ মাহমুদ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে। এ সময় হামলাকারীরা তাকে মারধর করে।

কলাপাড়ার সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. রফিকুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে গিয়ে স্কুল বন্ধ করে দিয়ে হামলার শিকার ওই শিক্ষকদের তিনি নিয়ে আসেন।