ভোলা-লক্ষ্মীপুর নৌরুটে ভোগান্তি

ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯ | ৬ ভাদ্র ১৪২৬

ভোলা-লক্ষ্মীপুর নৌরুটে ভোগান্তি

ভোলা প্রতিনিধি ৮:৪৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৬, ২০১৯

print
ভোলা-লক্ষ্মীপুর নৌরুটে ভোগান্তি

যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে পাঁচ দিন ধরে বিকল হয়ে আছে ভোলা-লক্ষ্মীপুর রুটের দুটি ফেরি। এতে উভয় পাড়ে তীব্র জটের সৃষ্টি হয়েছে। দুটি সচল ফেরি চললেও কমছে না যানবাহনের জট। শুক্রবার পর্যন্ত উভয় পাড়ে পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে পাঁচ শতাধিক পণ্যবাহী যানবাহনসহ বিভিন্ন পরিবহন।

জানা গেছে, ভোলার সঙ্গে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার যোগাযোগের অন্যতম সহজ মাধ্যম ভোলা-লক্ষ্মীপুর রুট। দেশের দীর্ঘতম এ রুট দিয়ে প্রতিদিন ৩টি ফেরি চলাচল করে আসছে কিন্তু গত ২২ ও ২৩ জুলাই কনকচাপা ও কৃষাণী নামে দুটি ফেরি যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বিকল হয়ে যায়। পাঁচ দিনেও বিকল ফেরি সচল হয়নি। ঘাটের জট কমাতে একটি সচল ফেরি চললেও কোনোমতেই জট কমছে না। গত মঙ্গলবার থেকে নতুন একটিসহ বর্তমানে দুটি ফেরি চললেও ঘাটে যানবাহনের দীর্ঘ লাইন পড়েছে।

ট্রকি ও কাভার্ডভ্যান চালকরা জানান, ভোলা-লক্ষ্মীপুর রুটটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু এ রুটে সেবার মান বাড়েনি। একের পর এক ভোগান্তি বাড়ছে। এখানে নিয়মিত ৪-৫টি ফেরি চালু করলে জট কমে যাবে।

ট্রাক চালকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ফেরি বিকল থাকায় এক সপ্তাহের অধিক সময় ধরে ঘাটে অপেক্ষা করেও ফেরির দেখা পাচ্ছেন না। কারও ট্রাকের কাচামাল নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। ঘাটে অনেক বিড়ম্বনা আর ভোগান্তির মুখে পড়তে হয় তাদের।

বিআইডব্লিটিসির ম্যানেজার ইমরান খান জানান, বিকল ফেরি সচলের চেষ্টা চলছে। আগামী দুদিনের মধ্যে ফেরি হলে জট কমে যাবে।