আগামীকাল মিন্নির জামিন আবেদন

ঢাকা, বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

আগামীকাল মিন্নির জামিন আবেদন

নিজস্ব প্রতিবেদক ৭:০৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ২০, ২০১৯

print
আগামীকাল মিন্নির জামিন আবেদন

বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে তাঁর স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি এখন বরগুনা জেলা কারাগারে। তাঁকে গ্রেপ্তারের পরে বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোর অভিযোগ করেন, মেয়েকে আইনি সহায়তা দেওয়ার জন্য কোনো আইনজীবী পাচ্ছেন না। শুক্রবার মিন্নিকে রিমান্ড শেষে আদালতে নিয়ে গেলেও কোনো আইনজীবী পাওয়া যায়নি। অবশেষে আইনি সহায়তা পেতে যাচ্ছেন মিন্নি।

আজ শনিবার বরগুনা জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহবুবুল বারী আসলাম বলেন, আজ সকালে মিন্নির কাছে কারাগারে ওকালতনামা (মামলা পরিচালনার ক্ষমতাপত্র) পাঠিয়েছিলাম। দুপুরে মিন্নি সেই ওকালতনামায় স্বাক্ষর করেছেন। আমরা সেই স্বাক্ষর করা ওকালতনামা পেয়েছি। এখন আমি চেম্বারে মিন্নির পক্ষে জামিনের আবেদন তৈরি করছি। আগামীকাল সকাল সাড়ে ১০ টায় বরগুনা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সিরাজুল ইসলাম গাজীর আদালতে মিন্নির পক্ষে জামিনের আবেদন করা হবে। এরপর আদালত শুনানির অনুমতি দিলে কালই জামিন শুনানি করব।

মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোর বলেন, অ্যাডভোকেট মাহবুবুল বারী আসলাম বরগুনায় আমার মামলা দেখছেন। এ ছাড়া ঢাকা থেকে অনেক উকিল আসবেন। এর মধ্যে ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের আইনজীবী ফারুক আহম্মেদের সাথে কথা হয়েছে। তিনিও শুনানি করতে আসবেন।

এত দিন বরগুনার আইনজীবীরা মামলা করতে কেন রাজি হয়নি এমন প্রশ্ন করলে মিন্নির বাবা বলেন, এখন হয়তো বিবেকের তাড়নায় মামলা করতে চাচ্ছেন। তবে আমি এগুলো মনে রাখতে চাই না। আমার মেয়ে ন্যায়বিচার পাক, এটাই দাবি আমার।

মোজাম্মেল হোসেন বলেন, অ্যাডভোকেট মাহবুবুল বারী আসলামের কাছে আজ ওকালতনামা ও কিছু কাগজ দিয়ে এসেছি। আগামীকাল সকালে মিন্নির পক্ষে জামিনের আবেদন করা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

এদিকে রিমান্ড শেষে মিন্নিকে গতকাল শুক্রবার আদালতে হাজির করে পুলিশ। মিন্নি বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজীর খাসকামরায় ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারা মোতাবেক রিফাত শরীফ হত্যায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। এরপরে মিন্নিকে কারাগারে পাঠান একই বিচারক।

এর আগে গত ১৬ জুলাই মঙ্গলবার সকালে বরগুনার মাইঠা এলাকার বাবার বাসা থেকে মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বরগুনার পুলিশ লাইনে নেওয়া হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে রিফাত হত্যাকাণ্ডে মিন্নির সম্পৃক্ততার প্রাথমিক প্রমাণ পাওয়ায় ওই দিন রাত ৯টার দিকে মিন্নিকে গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ। পরে ওই মামলায় বুধবার বিকেলে মিন্নিকে আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করে পুলিশ। রিমান্ড শুনানি শেষে আদালত তাঁর পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। ওই পাঁচ দিন রিমান্ডের দ্বিতীয় দিনে মিন্নিকে আদালতে হাজির করে পুলিশ।

এ ছাড়া শুক্রবার সকালে এ মামলার তিন নম্বর আসামি রিশান ফরাজীকে আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করলে পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় এখন পর্যন্ত ১৬ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে মিন্নিসহ ১৩ জন অভিযুক্ত রিফাত হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। এ ছাড়া এ মামলার দুজন অভিযুক্ত রিমান্ডে রয়েছেন। আর এ মামলার প্রধান অভিযুক্ত নয়ন বন্ড বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন।