গঙ্গামতির সড়ক বেহাল

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৩১ ভাদ্র ১৪২৬

গঙ্গামতির সড়ক বেহাল

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি ৯:১৮ অপরাহ্ণ, জুন ১৯, ২০১৯

print
গঙ্গামতির সড়ক বেহাল

গঙ্গামতি সৈকত। অপার সম্ভাবনায়ময় আরেকটি পর্যটন কেন্দ্রের নাম। পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটার মাত্র তিন কিলোমিটার পূর্বে এর অবস্থান। গঙ্গামতি সৈকতে দাড়িয়ে সূর্যোদয় আর সূর্যাস্থের মত মনলোভা দৃশ্য একনজর দেখার জন্য প্রতিদিন ভীড় করছে শতশত পর্যটক। কিন্তু পাঁচ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য আর দুই কিলোমিটার প্রস্থের এ সৈকতে যাওয়ার প্রবেশ দ্বারের রাস্তাটি এখন সমতল ভূমিতে পরিণত হয়েছে।

আসা যাওয়ার সড়কটির এমন বেহাল দশার ফলে প্রকৃতির অপূর্ব সৌন্দর্য উপভোগ করতে আসা পর্যটকরা দ্বিতীয়বার আসতে অনিহা প্রকাশ করে। রাস্তাটি সংস্কারে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছে পর্যটকসহ স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

ধুলাসার ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল জলিল আকন জানান, বালি দিয়ে রাস্তাটি কোনমতে মেরামত করা হয়েছিল। কিন্ত ইটের গাইডওয়াল না দিতে পারায় রাস্তাটি সমতল ভূমিতে পরিণত হয়েছে। ইট দিয়ে রাস্তা করার মত বরাদ্ধ ইউনিয়ন পরিষদের নেই বলে তিনি জানান। কলাপাড়া উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলৗ আবদুল মান্নান জানান, গঙ্গামতির সৈকতের প্রবেশদ্বারের কাঁচা রাস্তাটি পাকাকরার স্কিম পাস হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার ধুলাসার ইউনিয়নে গঙ্গামতি সৈকতের অবস্থান। এখানে রয়েছে বিশাল আয়তনের সংরক্ষিত বনাঞ্চল। ইতোমধ্যে পর্যটকদের সুবিধার্থে এখানে স্থাপন করা হয়েছে সুপেয় পানির দুটি টিউবওয়েল, দুটি বাথরুমসহ পিকনিক স্পট। এছাড়া এখানে গড়ে উঠেছে পর্যটক নির্ভর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। পর্যটকরা দিনের আলোয় সবটুকু সৌন্দর্য উপভোগ করতে এখন ভিড় করছে এ সৈকতে। এতকিছুর পরও এ সৈকতের প্রবেশদ্বারের রাস্তাটি সংস্কারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ রয়েছে উদাসীন।