মাকে হাসপাতালের বেডে তোলায় সন্তানকে পিটুনি

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯ | ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

মাকে হাসপাতালের বেডে তোলায় সন্তানকে পিটুনি

বরগুনা প্রতিনিধি ১২:৩৩ অপরাহ্ণ, মে ১৫, ২০১৯

print
মাকে হাসপাতালের বেডে তোলায় সন্তানকে পিটুনি

অসুস্থ মাকে ফ্লোর থেকে হাসপাতালের বেডে তোলায় সন্তানকে পেটালেন বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক আনোয়ার উল্লাহ। মারধরে ওই কিশোর আহত হয়েছে। ওই ঘটনার একটি ভিডিও ইতোমধ্যে ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটি শেয়ার করে অনেকেই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তার বিচার চেয়েছেন স্থানীয়রা।

গত সোমবার এ মারধরের ঘটনা ঘটে। পরে কেউ একজন ওই মারধরের ভিডিও মোবাইলে ধারণ করে ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়। পরে সেটি ভাইরাল হয়ে যায়। ভিডিওতে দেখা যায়, পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা. আনোয়ার উল্লাহ হঠাৎ তেড়ে এসে জিলানী নামে এক কিশোরকে চড়-থাপ্পড় মেরে আহত করেন।

জিলানী জানায়, এক ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে আমার মাকে কোনো চিকিৎসা না দিয়ে হাসপাতালের ফ্লোরে ফেলে রাখেন নার্স ও চিকিৎসকরা। পরে আমি তাকে নারী ওয়ার্ডের বেডে তুললে ডা. আনোয়ার আমাকে মারধর করেন।

এ বিষয়ে পাথরঘাটা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফাতিমা পারভীন বলেন, আনোয়ার উল্লাহর বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ আগেও শুনেছি। আমরা তার শাস্তির দাবিতে সোচ্চার হব।

তবে ডা. আনোয়ার বলেন, নারী ওয়ার্ডে এক কিশোর চিৎকার করছে, নার্সদের কাছে এ কথা শুনে আমি নারী ওয়ার্ডে যাই। এ সময় ওই কিশোরের কথা আমি মোবাইলে রেকর্ড করতে চাইলে সে মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। তখন আমি তাকে মারধর করি।

এ বিষয়ে বরগুনার জেলা প্রশাসক কবির মাহমুদ বলেন, এরকম ঘটনা যদি ঘটে, তাহলে নিকৃষ্টতম কাজ করেছেন ওই চিকিৎসক। এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেব।