ভোলায় ৩৬ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা

ঢাকা, রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ১০ আশ্বিন ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

ভোলায় ৩৬ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক
🕐 ৩:৫৮ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৫, ২০২২

ভোলায় ৩৬ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা

স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মী আব্দুর রহিম মাতুব্বরের মৃত্যুর ঘটনায় ভোলা সদর মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক আরমান হোসেনসহ ৩৬ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করা হয়েছে। বুধবার (৪ আগস্ট) নিহতের স্ত্রী খাদিজা বেগম বাদী হয়ে ভোলা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলাটি দায়ের করেন।

 

বাদীপক্ষের আইনজীবী আমিরুল ইসলাম বাসেত আদালতের বরাত দিয়ে বলেন, হত্যা মামলাটি আমলে নিয়ে আদালত আগামী ৮ আগস্টের মধ্যে ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নিহত আব্দুর রহিমের মৃত্যু সংক্রান্ত থানায় রক্ষিত সকল রিপোর্ট আদালতে জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। মামলায় আদালতের কাছে ঘটনাটি বিচার বিভাগীয় অথবা র‌্যাবের মাধ্যমে তদন্তের আর্জি জানানো হয়েছে।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে ভোলা জেলা বিএনপির কর্মসূচি উপলক্ষে দলীয় কার্যালয়ে যান আব্দুর রহিম মাতুব্বর। সেখানে সমাবেশের শেষপর্যায়ে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ভোলা সদর মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক আরমান হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা গিয়ে বিনা উসকানিতে শান্তিপূর্ণ সমাবেশে হঠাৎ লাঠিচার্জ শুরু করেন। এতে জমায়েত হওয়া ৩/৪ হাজার মানুষ ছুটোছুটি শুরু করেন। এ সময়ে আরমান হোসেন তার পাশে থাকা কনস্টেবলের অস্ত্র কেড়ে নিয়ে স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মী আব্দুর রহিমের মাথায় আঘাত করেন। এমনকি তার হাতে থাকা অস্ত্র দিয়ে গুলিবর্ষণ করেন। এতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় আব্দুর রহিমের। এছাড়া তাদের মারধর ও গুলিবর্ষণে ১৪ জন মারাত্মকভাবে জখম হয়। আহত হয় সব মিলিয়ে অর্ধশত মানুষ।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ জুলাই বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সমাবেশ ও বিক্ষোভ কর্মসূচিতে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষে ঘটনাস্থলে একজন এবং পরবর্তীতে জেলা ছাত্রদলের সভাপতি নূরে আলম নিহত হন। এ ঘটনায় নিহতের পরিবার থেকে মামলা দায়েরের আগে ভোলা সদর থানার এসআই জসীম বাদী হয়ে ৩৭৫ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা ও আরেকটি সরকারি কাজে বাধার অভিযোগ এনে মামলা করেন। ওই মামলায় এখন পর্যন্ত ১১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

 
Electronic Paper