কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা: ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

ঢাকা, শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা: ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

আরিফ মোস্তফা, পিরোজপুর
🕐 ৭:৪২ অপরাহ্ণ, জুন ১৮, ২০২২

কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা: ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে বখাটের উৎপাতে শার্মিলা আকতার মীম নামের এক কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যার ঘটনায় ইন্দুরকানী থানায় মামলা হয়েছে। নিহত কলেজ ছাত্রীর পিতা শাহাদাৎ হোসেন রানা বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে অভিযুক্ত বখাটে তানভির আহম্মেদ ও তার সহযোগী সহ ৫ জনের বিরুদ্ধে আত্মহত্যা প্ররোচনার অভিযোগ এনে মামলা করেন।

জানা যায়, পত্তাশী গ্রামের শাহাদৎ হোসেন রানা ঢাকায় একটি কোম্পানিতে চাকুরী করে। তার মেয়ে শার্মিলা আকতার মীম উজেলার পত্তাশী এলাকায় থাকা পত্তাশী জনকল্যান কলেজে একাদশ শ্রেনীতে পড়ে। শাহাদৎ হোসেন রানার অভিযোগ তার মেয়ে শার্মিলা আকতার মীম কলেজ থেকে বাড়ীতে ফেরার পথে বখাটে তানভির ও তার সহযোগীরা প্রায়ই খারাপ কথা বলত এবং প্র্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। বিষয়টি কলেজ ছাত্রী শার্মিলা তার বাবা ও মাকে প্রায়ই জানাতো।

গত একসপ্তাহ আগে ওই ছাত্রীর বাবা ঢাকা থেকে বাড়ীতে আসার পথে মেয়েকে কম্পিউটার সেন্টার থেকে নিয়ে আসার সময় পত্তাশীর বটতলা এলাকা থেকে বাড়ীর রাস্তায় ঢোকার পথে বখাটে তানভির ও তার দুই সহযোগী দাড়িয়ে ছিল। তখন কলেজ ছাত্রীকে খারাপ কথা বলে। আরও বলে বডিগার্ড নিয়ে কয়দিন হাটবে। এভাবে কয়েকমাস ধরে শুধু প্রেম প্রস্তাব নয় তুলে নিয়ে যাবে বলে হুমকি দিয়ে আসছিল তানভির। এমনকি বাড়ী ঘরে হামলা করবে বলেও তাকে ভয় দিত।

বুধবার আবারও ওই বখাটে তানভীর সহ তার সহযোগীরা কলেজ ছাত্রীকে তুলে নেয়ার হুমকী দেয়। বাড়ীতে তার মা না থাকায় শুধু ছোট ভাইকে নিয়ে ঘরে ছিল। পাশে তার নানার ঘর সে তার নানীকে তাকে হুমকী দেয়ার বিষয়টি জানায়। বুধবার রাতেও বখাটে তানভির মোবাইলে কলেজ ছাত্রীকে তুলে নেয়া হবে বলে হুমকী দেয়।

বৃহস্পতিবার কলেজ ছাত্রী তার রুমের দরজা বন্ধ করে সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। এসময় তার স্বজনরা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন।

নিহত কলেজ ছাত্রীর মা রুমা বেগম বলেন ওরা আমার মেয়েকে আত্মহত্যাকরতে বাধ্য করেছে। শুধু ফোনে হুমকী নয় তাকে ব্লাক মেইল করে তার চরিত্র হণনের চেষ্টা ও করছে। আমি আমার মেয়ের হত্যার প্ররোচনাকারীর গ্রেফতার ও শাস্তি দাবী করছি।

নিহত মিমের পিতা শাহাদৎ হোসেন রাানা জানান, আমার একমাত্র মেয়ের মত আর কোন মেয়ে কে এভাবে প্রাণ দিতে না হয়। সে তার মেয়েকে যারা ডিষ্টাব করেছে তাদের গ্রেফতার ও শাস্তি দাবী করছেন। বখাটে তানভির পত্তাশী মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম মোল্লার ছোট ছেলে। ঘটনার পর থেকে তানভির তার বন্ধুরা গা ঢাকা দিয়েছে।

ইন্দুরকানী থানার ওসি মোঃ এনামুল হক জানান, মামলা হয়েছে, কলেজ ছাত্রীকে উত্যক্তকারীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান চলছে।

 
Electronic Paper