মশকরা, বশকরা শেষমেশ ধরাপড়া

ঢাকা, বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১ | ৪ কার্তিক ১৪২৮

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

মশকরা, বশকরা শেষমেশ ধরাপড়া

অভিজিত বড়ুয়া বিভু
🕐 ৪:৩৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২১

মশকরা, বশকরা শেষমেশ ধরাপড়া

-এই, শোন। মুখে কী ব্যবহার করিস বল তো?
-মানে!
-মানে আবার কী? তোর মুখটায় লাল লালচে ভাব। ঠিক রাগ রাগী ভাব না। কী যেন এক ফলের মতো দেখাচ্ছে।
-ওহ, তাই! তাই না? এমনে গরমে মরি। মশকরা করছেন।
-আসলে তোর সঙ্গে ঠিক মশকরা না। তোকে কীভাবে বশকরা করা যায় ভাবছি।

-ভালোই তো। চেষ্টা করে যান।
-ভাবছি তোকে নিয়ে ঘুরতে যাব।
-কেন? কীভাবে? কী কারণে?
-ওই যে কী যেন বলে না। হ্যাঁ মনে পড়ল। সিনেমার নায়ক-নায়িকারা আড়াল করা গোপন কথা নির্জনে বলতে দূরে কোথাও ঘুরতে যায়।
-ভালোই তো। নিয়ে যাবেন। চলেন। আমি রাজি।
-রাজি থাকলে তো হবে না। কিছু খরচাপাতি তো লাগবে নাকি?
-হ্যাঁ লাগবে বৈকি। এখানে একটা কথা, কে কার মনের গোপন কথাটি বলবে। নায়ক নাকি নায়িকা?
-কেন নায়ক! নায়িকারা লজ্জায় সব কথা বলতে পারে না। প্রস্তাবটা আমিই দেব। আর প্রস্তাবে তুমি রাজি হয়ে যাইবা।
-তুই, তুমি, যাইবা, খাইবা, নাইবা, গাইবা এসব কথা বাদ দিয়ে বলেন কখন কবে যেতে হবে।
-তুই কি রাজি?
-আরে আপনি তো দেখছি ঢাকাইয়া ছবির কাহিনির মতো কখন কী হবে আগেভাগে সব জেনে নিতে চাচ্ছেন।
-তা নয় তো কী। যদি বেড়াতে যেতে রাজি না হস তো! তখন আমার কী হবে? টাকাপয়সার ব্যাপার!
-ওরে আমার নায়ক রে। নায়িকাকে বশকরা কী এত সহজ! নায়কের পদে পদে বাধা। নায়িকাকে নায়িকার মা বাধা দেবে। বাবা ভাই বাধা দেবে। নায়িকার ডজনখানেক প্রেমিক থাকলে তাদের লাত্তিগুঁতা সহ্য করার পরই নায়ক নায়িকার মন জয় করবে। তার আগে না।
-তার মানে তুই এমনিই আমার সঙ্গে ঘুরতে যাবি। কোনো প্রস্তাবে রাজি হবি না?
-অসম্ভব। বোকা নাকি! এককথায় রাজি হয়ে যাব? আমার তো অন্য কারওর সঙ্গে প্রেম করার ইচ্ছা আছে। যাকে মনে ধরবে তাকে বিয়ে করব। সেজন্য আপনি অথবা অন্য কেউ।
-বাহ! তুই তো দেখছি নিজেকে নিয়ে অনেক কিছু ভাবতে শুরু করেছিস?
-ভাবতে হবে। তার আগে আপনার ভাবা উচিত ছিল আমি গরিব অসহায় হলেও আমার দৌড় কতদূর!

ইছামতী, রাঙ্গুনিয়া, চট্টগ্রাম

 
Electronic Paper