পাগল কেন হয়

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট ২০২০ | ২০ শ্রাবণ ১৪২৭

পাগল কেন হয়

আলম তালুকদার ৩:৪০ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৭, ২০২০

print
পাগল কেন হয়

একবার আমার এক ঘনিষ্ঠ ডাক্তার বন্ধুর কাছে পাগল কীভাবে হয় তার একটা গল্প শুনেছিলাম। ডাক্তার আর রোগী বল্টুর কথা পড়–ন।
ডাক্তার : তুমি পাগল হলে কীভাবে?

বল্টু : পাগল কি সাধে হইছি? এক বিধবা মহিলারে বিয়ে করছিলাম...। তার এক যুবতী মেয়ে ছিল। তাকে বিয়ে করল আমার বাবা। তো আমার মেয়ে হয়ে গেল আমার মা এবং আমি হয়ে গেলাম বাবার শ্বশুর। তার ঘরে একটা মেয়ে জন্মাল। সে হল আমার বোন কিন্তু আমি তার নানির জামাই। সে দিক থেকে সে আমার নাতনিও। এভাবে আমার একটা পোলা হইল। তো আমার পোলা আমার বাপের শালা।
আর আমি আমার পোলার ভাইগ্না...।
ডাক্তার : চুপ কর শালা। আমারেও তো পাগল বানাইয়া ছাড়বি! এটা বহুত পুরাইনা গল্প। করোনাময় সময়ে অনেক পরিবার তছনছ হয়ে গেছে। বলা নেই কওয়া নেই অনেক নামীদামি খ্যাত অখ্যাতজন দুনিয়ার মায়া ত্যাগ করে চলে গেছেন তার সঠিক খবর জানা কঠিন। করোনাভাইরাস এই শব্দটি পৃথিবী জব্দ করে স্তব্ধ করে দিচ্ছে। অতি দ্রুত ভ্যাকসিন আবিষ্কার না হলে মানুষ পাগল হয়া যাবে!
আমাদের পাশের একটা গ্রাম আছে, সেই গ্রামে ছিল বাইশ পাগলের মেলা! পাগল পরিবার ছিল একাধিক। এমনই এক পরিবারের মেয়ে পাগল তার মাকে এক সকালে জিজ্ঞেস করে- মা, তোমার পেটে কত পাগল জন্ম নিছে?
-ক্যা, কতজন? তুই হিসাব কইরা বাইর করস না ক্যা? আমি তো দেখি কয়জন মাত্র।
তো মেয়েটি হিসাব করে বলছে, তোমার পেট থেকে আমার ছয় ভাইবোন সব পাগল, তোমার পেট থেকে বাবা অইসে হে পাগল, চারজন জামাই আইছে হেরা পাগল, ভাবিরা পাগল! তোমার পেটে এত পাগল আছিল?
তো করোনাভাইরাস যে কত পরিবারকে পাগল বানাবে একমাত্র সৃষ্টিকর্তাই জানেন।