মশার লকডাউন

ঢাকা, শনিবার, ৪ জুলাই ২০২০ | ১৯ আষাঢ় ১৪২৭

মশার লকডাউন

রুহুল আমিন রাকিব ৮:০৫ পূর্বাহ্ণ, জুন ০২, ২০২০

print
মশার লকডাউন

সেদিন রাতে কী যেন এক কাজে ক্লাসমেট মফিজের বাড়ি গিয়েছি। রুমে ঢুকে আমি তো অবাক! মফিজকে দেখি মশারির বাইরে। আমাকে দেখেও না দেখার ভান ধরে আছে মশারির দিকে তাকিয়ে। গা ধাক্কা দিয়ে বললামÑ দোস্ত, মশারি টাঙানো অথচ তুমি বাইরে বসে! বিষয় কী খুলে বলো।

মফিজ আমার দিকে তাকিয়ে বলল, শোন দোস্ত, রোজ প্রতিপক্ষকে সঙ্গে নিয়ে একই রুমে থাকাটা আমার জন্য অসম্ভব! এখন দেশজুড়ে লকডাউন চলছে। তাই চিন্তা করে দেখলাম যে আজ ওদেরকে লকডাউনে রেখে আমি সারা রাত বাইরে থাকব। রোজ রাতে ওদের গান শুনতে শুনতে অবস্থা কাহিল!

ঘুমানোর আগে কত কষ্ট মশারি টাঙাই, তারপরে হঠাৎ রাতে ঘুম ভেঙে যায় ওদের কণ্ঠ শুনে। ওদের বেসুরো গলার গান শুনেও যখন আমার ঘুম ভাঙে না তখন কিস করা শুরু করে দুই গালে। ওদের কিস করার কারণে গালে দাগ হয়েছে। এখন এই দাগ দেখে আমার প্রেমিকা গালে কিস করে না!

কথা বলার এক ফাঁকে মফিজ আমার গালে ঠাস করে চড় দিয়ে বলল, দোস্ত এই মশারা খুব খারাপ, আমাদের মতো এরাও লকডাউন মানে না। দেখ মশারির ভেতরে আমাকে খুঁজে না পেয়ে এখন বাইরেও গান ধরেছে। আশপাশে উড়ে উড়ে।

মফিজের এমন কা- দেখে কথা না বাড়িয়ে তাড়াতাড়ি কেটে পড়লাম। মনে মনে বললাম একটু পরে হয়ত বলবে, মশক চেয়ারম্যান ত্রাণ চুরি করতে লকডাউন ভেঙে মশারির বাইরে এসেছে!