খ্যাতি

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১২ ফাল্গুন ১৪২৬

খ্যাতি

শফিক শাহরিয়ার ৬:৩৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২০, ২০২০

print
খ্যাতি

আমাদের হাঁসাইগাড়ি বিলের খ্যাতি দশ গ্রামের সবারই জানা। যারা জানে না তারা খ্যাতি শুনলে এক মুহূর্ত স্থির থাকতে পারে না। বাইক থাকলে কোনো অজুহাত নেই। যখন খুশি একা বা জোড়ায় জোড়ায় আসতে পারেন। বাইক না থাকলেও সহজে হেঁটে যাওয়া যায়।

বিলের সঙ্গে ভ্রমণপ্রেমীদের গভীর মিতালি। সেখানে না গেলে বিলের মজা কাউকে বোঝানো খুব মুশকিল। বিল ভরা পানি, নৌকা আর মাঝি- এসব কাকে না আকর্ষণ করে! যাকে আকর্ষণ করে না, সে ভ্রমণপ্রেমী নয়।

কেউ কেউ আজগুবি নানা প্রশ্ন তোলেন। নতুন করে বিল দেখার কী আছে তাদের বলি আপনারা মুখে পান দিয়ে পা গুটিয়ে বসে থাকেন। আর আমরা পা মেলিয়ে থাকি।
দেখার চোখ থাকলে দেখতে পেতেন। বিশেষ দিনগুলোতে উপচেপড়া ভীড়। বাইকপ্রেমীরা শুধু ফুটানি করতেই আসে না, আড্ডা দিতেও আসে। যেমন করেই আসুক, তারা তো বিলের টানেই আসে। বিলের ঝাক্কাস ছবিগুলো কে না ফেসবুকে আপলোড দেয়! যারা আসে না, তারা বসে বসে পস্তায়।

বিশেষভাবে যুগল প্রেমিকা-প্রেমিকার বিচরণও লক্ষ করা যায়। তারা পড়ন্ত বিকেলে নৌকায় চড়ে ঘুরে বেড়ায়। নির্দ্বিধায় মনের কথা বলতে পারে। তাদের সম্পর্ক গভীর থেকে গভীরতম হয়। কিছু কিছু তরুণ-তরুণীর কথা না বললেই নয়। তারা আসে কারো ভাব-ভালোবাসা পরখ করতে। বিলের কোমল বাতাসে মনটা ফুরফুরে হয়। তারাও ভালোবাসার স্বপ্ন বুনতে শেখে।

সেখানে একজন হকারকে জিজ্ঞাসা করলাম, আপনার দোকানের নাম ‘বাংলাদেশ চটপটি’ কেন ‘হাঁসাইগাড়ি চটপটি’ নামটা রাখতে পারতেন। বেশি বিক্রি হতো। আরো লাভবান হতেন। উনি বললেন, ‘আমি তার চেয়ে আরো লাভবান।’
বললাম, ‘ব্যাপারটা একটু খোলাসা করে বলুন তো!’
উনি ভেবেচিন্তে বললেন, ‘এখানে হাঁসাইগাড়ির বাইরে থেকেই বেশি লোকজন আসেন। তাই দোকানের নামটা এমন দিয়েছি। যেন বাংলাদেশের সবার নজর কাড়ে।’
অবশেষ বুঝলাম- লাভের হিসাব সহজ নয়, খ্যাতি থাকলে কী না হয়!