ভুল বোঝাবুঝি

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৪ আশ্বিন ১৪২৬

ভুল বোঝাবুঝি

আবু সাইদ ১০:১৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৯, ২০১৯

print
ভুল বোঝাবুঝি

হারুন বগুড়ার একটি গ্রাম থেকে ঢাকায় তার কাকার বাসায় বেড়াতে এসেছে। বিভিন্ন এলাকা ঘুরেও দেখছে। আজ সকালে নাস্তার টেবিলে কাকা জিজ্ঞেস করলেন, সে কোন কোন এলাকা দেখেছে। একে একে দর্শনীয় স্থানগুলোর নাম বলল সে- ‘কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, তারা মসজিদ, লালবাগ কেল্লা, আহসান মঞ্জিল, জাতীয় জাদুঘর...।’
কাকা মুচকি হেসে বললেন, ‘চিড়িয়াখানায় যাওনি?’
‘যাইনি। তবে আজ যাব।’

পরিকল্পনামতো সকাল ৯টায় বাসা থেকে বের হলো হারুন। অফিস টাইম হওয়ার কারণে রাস্তায় মানুষের ভিড় খুব বেশি। ভিড় ঠেলে চিড়িয়াখানার গাড়িতে উঠল। কিন্তু বসার সিট পেল না। মানুষের চাপে আস্তে আস্তে বাসের পেছন দিকে গেল। সিটে সবাই গাদাগাদি করে বসে আছে। পরের স্টপেজে একজন পেছনের সিট থেকে নেমে গেল। হারুন সেখানে বসে পড়ল। বাম পাশে ছিল একজন ২৫-২৬ বছর বয়সী এক মেয়ে। প্রথমে সে একটু ইতস্তত বোধ করল। পরে ভাবল, ওই সিট থেকে যে লোকটি নেমে গেছে সেও তো পুরুষ ছিল!

নাভিশ^াস গরমে মোটাসোটা মেয়েটি এপাশ-ওপাশ করতে লাগল। গরমে অন্য যাত্রীরাও অস্থির। এদিকে যানজটে আটকা পড়ে এক পা-ও এগুচ্ছে না গাড়ি। হঠাৎ হারুন দেখল তার ঠিক বাম পাশ থেকে প্যান্ট ভিজে যাচ্ছে। প্রথমে ভাবল ঘাম থেকেই হয়তো ভিজেছে। কিন্তু পুরো প্যান্ট ভেজার উপক্রম হলে বুঝতে পারল এ কাজ পাশের মেয়েটিরই! লাফ দিয়ে দাঁড়িয়ে বলল, ‘আপা, এইডা কী করলেন?’
মেয়েটিও ক্ষেপে দাঁড়িয়ে গেল- ‘আপনি এইডা কী করলেন?’
‘আপনি!’ মেয়েটিও দ্বিগুণ চেতে বলল, ‘আপনি!’
হট্টগোল দেখে অন্য যাত্রীরা জানতে জিজ্ঞেস করল, কী হয়েছে?

হারুন বলল, ‘দেখেন না ভাই, টয়লেটের কাজ আমার প্যান্টে সারল!’
মেয়েটিও চিৎকার করল- ‘কাজটা উনিই করেছেন। দেখেন না, আমাকে ভিজিয়ে কী অবস্থা করেছেন!’
হারুনের ডান পাশের লোকটি বলে উঠল, আপনারা কী জন্য ঝগড়া করছেন? চাপ লেগে আপার পানির বোতলটা ফেটে পানি বের হয়েছে। এই দেখেন, বোতল খালি হয়ে গেছে!